প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (পঞ্চম সম্ভার).djvu/৩৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আগামী কাল তিনি মারা গেলেন। মণির বাপ আমাকে ডেকে বললেন, সেজন্য ভাবনা নেই রমেন, তুমি আমার মেয়েটিকে ঘণ্টাখানেক করে পড়িয়ে যেয়ো। দুশ্চিন্তা ঘুচলে, কিন্তু দিন দুই-তিন পড়ানোর পরেই বুঝলাম ওকে আমি পড়াবো বটে, কিন্তু আমাকেও ও পড়াতে পারে। কামাই করতে শুরু করলাম, যদি-বা যাই গল্প করে কাটাই, তবু দেখা গেল পরীক্ষায় মণি প্রথম হয়েচে। মণির বাপের ছিল দেশোদ্ধারের ব্যাধি, বাড়ির কোন খবরই রাখতেন না, অত্যন্ত খুশী হয়ে আমাকে ডেকে পিঠ ঠুকে দিলেন, বললেন, আমার মতো কর্তব্যপরায়ণ লোক আর নেই এবং আমার কলেজের অৰ্দ্ধেক খরচ তিনিই দেবেন। আমার কর্তব্যপরায়ণতার বিবরণ বাপের কাছে মণি কোনদিন বলেনি। এমন কি, ম্যাটি-ক পরীক্ষায় ও যখন জলপানি পেলে, তারও অৰ্দ্ধেক কৃতিত্ব আমার ভাগেই জুটলো। জানিনে কি কারণে বাপের বিশ্বাস ছিল মেয়ের লেখাপড়ার বনেদ আমিই পাকা করে দিয়ে গেছি। তার পরে ? কার পরে দাদা ? ম্যাটি কে স্কলারশিপ পাবার পরে মণি কি করলে ? - * মণি একটা আঞ্জুল তুলে নিঃশব্দে তর্জন করে শেষে মাথা মেড়ে বললে, ও হবে না বুমেন। নিজের সম্বন্ধে বলতে চাও বলে, কিন্তু আমার সম্বন্ধে না । কিন্তু উনি যে মনিব। জানতে চাইলে কি না বলা সাজে ? মুনিব আমার তোমার নয়। আমার কাছে যখন জানতে চাইবেন আমি তার উত্তর দেবো । এককড়ি প্রশ্ন করলে, বেশ তুমিই বলে। তোমার কাছেই জানতে চাইছি কি করলে তার পরে । কলেজে গিয়ে ভৰ্ত্তি হলে ? - - এ কৌতুহলে লাভ কি এককড়িদা ? আপনার কাজ ত চালিয়ে দিচ্ছি। সে অস্বীকার করিনে মণি, বরঞ্চ মুক্তকণ্ঠে স্বীকার করি, আমাদের সঙ্গের কাজ অনেক বড় করেই এতদিন চালিয়ে এসেছ। কিন্তু আমাদের সঙ্ঘের প্রয়োজন যদি তোমাতে শেষ হয়ে থাকে আর কোন একটা উপায় করে ত দিতে পারি। কিছু একুটা তোমার ত করা চাই। জীবিকার জন্ত বলছেন ? ধরে তাই। - কিছুক্ষণ সকলেই চুপ করে রইলো। শেষে মণি জিজ্ঞাসা করলে আমাকে কি আপনি আর চান না ? - - জলধি চায় না। সে বলে তুমি থাকলে কল্যাণ-সঙ্গের নাম প্ৰাগটে BBB B S S S S S S S S S S S S ! - °续镜