প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (প্রথম সম্ভার).djvu/১৫৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ পড়িল । বেলা দুইটা বাজিয়া গেল, তথাপি স্বরেন্দ্র ফিরিল না। ভূত্য তখন মাধবীকে সংবাদ দিল যে, মাস্টার মহাশয় চলিয়া গিয়াছেন। কোথায় গেছেন ? তা জানি না। বেলা নটার সময় চলে যান। যাবার সময় অামায় বলে যান যে, বড়দিদিকে ব’লো আমি চলে যাচ্ছি। সে কি রে ? না খেয়ে চলে গেলেন ? মাধবী উদ্বিগ্ন হইল। তারপর সে নিজে স্বরেন্দ্রনাথের কক্ষে আসিয়া দেখিল—সব জিনিসপত্রই তেমনি আছে, টেবিলের উপর চশমাটি খাপেমোড়া রাখা আছে, শুধু বই কয়খানি নাই। সন্ধ্যা হইল, রাত্রি হইল—ম্বরেন্দ্রনাথ আসিল না। পরদিন মাধবী দুইজন ভৃত্যকে ভাকিয়া কহিয়া দিল, তোমরা অনুসন্ধান করিয়া ফিরাইয়া আনিলে দশ টাকা পুরস্কার পাইবে । পুরস্কারের লোভে তাহারা ছুটিল ; কিন্তু সন্ধ্যার সময় ফিরিয়া আসিয়া কহিল যে, কোন সন্ধান পাওয়া গেল না । প্রমীলা র্কাদিয়া কহিল, বড়দিদি, তিনি চলে গেলেন কেন ? মাধবী তাহাকে সরাইয়া দিয়া কহিল, বাইরে যা, কঁদিসনে। দুইদিন, তিনদিন করিয়া যত দিন যাইতে লাগিল, মাধবী তত অধিক উদ্বিগ্ন হইয়া পড়িল । বিন্দু কহিল, বড়দিদি, তা এত খোজাখুজি কেন ? কলকাতা শহরে আর কি মাস্টার পাওয়া যায় না ? মাধবী ক্রুদ্ধ হইয়া বলিল, তুই দূর হ । একটা মানুষ একটি পয়সা হাতে না নিয়ে চলে গেল, আর তুই বলিস্ খোজাখুজি কেন ? তার কাছে একটিও পয়সা নেই, তা কি ক’রে জানলে ? তা আমি জানি, কিন্তু তোর অত কথায় কাজ কি ? বিন্দু চুপ করিয়া গেল। ক্রমে যখন সাতদিন কাটিয়া গেল, অথচ কেহ ফিরিয়া আসিল না, তখন মাধবী একরূপ অন্ন-জল ত্যাগ করিল। তাহার মনে হইত, স্বরেন্দ্রনাথ অনাহারে আছে। যে বাড়ির জিনিস চাহিয়া খাইতে পারে না, পরের কাছে কি সে চাহিতে পারে ? তাহার দৃঢ় ধারণা স্বরেন্দ্রনাথের কিনিয়া খাইবার পয়সা নাই, ভিক্ষা করিবার সামর্থ্য নাই, ছোটছেলের মত অসহায় অবস্থায় হয় ত বা কোন ফুটপাতে বসিয়া কাদিতেছে, না হয় কোন গাছের তলায় বই মাথায় দিয়া ঘুমাইয়া আছে। ব্রজরাজবাবু ফিরিয়া আসিয়া সব কথা শুনিয়া মাধবীকে কহিলেন, কাজটা ভাল হয়নি মা। মাধবী কষ্ট্রে অশ্র সংবরণ করিল। డి&ఇ