প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (প্রথম সম্ভার).djvu/৩৭৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


#ब्र९-नांश्लिा-मरéझे মণিশঙ্কর জিভ কাটিয়া কহিলেন, ছিছি, অমন কথা মুখেও এনে না চন্দ্রনাথ। চন্দ্রনাথ কহিল, আর কোনদিন আনবার আবশ্বক হবে না। আপনি আমার পূজনীয়, আজ যদি কোন অপরাধ করি, মার্জনা করবেন। আমার সমস্ত বিষয়সম্পত্তি আপনি নিন, নিয়ে আমার পরে প্রসন্ন হোন। শুধু যেখানেই থাকি, কিছু কিছু মাসহারা দেবেন —ঈশ্বরের শপথ ক’রে বলুচি, এর বেশী আর কিছু চাইব না। কিন্তু এ সৰ্ব্বনাশ আমার করবেন না। তাহার কণ্ঠ রোধ হইয়া আসিল এবং অধর দাত দিয়া চাপিয়া ধরিয়া সে কোন মতে উচ্ছ্বসিত ক্ৰন্দন থামাইয়া ফেলিল । মণিশঙ্কর উঠিয়া দাড়াইয়া চন্দ্রনাথের ডান-হাত চাপিয়া ধরিয়া কাদিয়া ফেলিলেন । বলিলেন, বাবা চন্দ্রনাথ, স্বগীয় অগ্রজের তুমি একমাত্র বংশধর- আমি ভিক্ষা চাইচি বাব, আর এ বৃদ্ধকে তিরস্কার কোরো না । চন্দ্রনাথ মুখ ফিরাইয়া চোখের জল মুছিয়া ফেলিয়া কহিল, তিরস্কার করি না কাকা । কিন্তু এত বড় দুর্ভাগ্যের পর দেশ ত্যাগ করা ছাড়া আর আমার অন্ত পথ নেই, সেই কথাই আপনাকে বলছিলাম । মণিশঙ্কর বিস্ময়ের স্বরে কহিলেন, দেশ ত্যাগ করবে কেন ? না জেনে এরূপ করেচ, তাতে বিশেষ লজ্জার কারণ নেই—শুধু একটা প্রায়শ্চিত করা বোধ করি প্রয়োজন হবে । চন্দ্রনাথ মৌন হইয়া রহিল। মণিশঙ্কর উৎসাহিত হইয়া পুনরপি কহিলেন, উপায় যধেষ্ট আছে। বউমাকে পরিত্যাগ ক’রে একটা গোপনে প্রায়শ্চিত্ত কর । আবার বিবাহ কর, সংসারী হও - সকল দিক রক্ষা হবে। চন্দ্রনাথ শিহরিয়া উঠিল । সংসারাভিঞ্জ মণিশঙ্কর তাহা লক্ষ্য করিয়া স্থির-দৃষ্টিতে তাহার মুখের দিকে চাহিয়া রহিলেন । চন্দ্রনাথ কহিল, কোন মতেই পরিত্যাগ করতে পারব না কাকা । মণিশঙ্কর কহিলেন, পারবে চন্দ্রনাথ । আজ বিশ্রাম করগে, কাল স্বস্থিরচিত্তে ভেবে দেখো এ কাজ শক্ত নয়। বউমাকে কিছুতেই গৃহে স্থান দেওয়া যেতে পারে না । ● কিন্তু প্রমাণ না নিয়ে কিরূপে ত্যাগ করতে অনুমতি করেন ? বৃদ্ধ কিছুক্ষণ চিন্তা করিয়া বলিলেন, অধিক প্রমাণ যাতে না হয় সে উপায় করব। কিন্তু তোমাকেও আপাতত: ত্যাগ করতে হবে । ত্যাগ ক’রে প্রায়শ্চিত্ত করলেই গোল মিটবে ! - কে মেটাবে ?

  • .

莺。 שאפt":