পাতা:শিক্ষাবিধায়ক প্রস্তাব.pdf/৭২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিমাণ-ভূত্র । * > গুৰুত্ব, তথা দৈর্ঘদি প্রভৃতির পরিমাণ-স্বত্র, সমুদায় আভাস করাইতে হয়। সচরাচর বিদ্যালয়ের বালকেরা ঐ সকল স্বত্র গুলি কেবল কণ্ঠস্থ করিয়া রাখে, এবং শিক্ষকের সেই সকল নিয়ম গুলি অভ্যস্ত হইয়াছে কি না এক২ খানি বহি ধরিয়া আপনার পরীক্ষা করেন। পরে অস্ক পুস্তক হইতে তৎসমুদায়ের উদাহরণ কসাইয়। দেন । এই প্রণালী সৰ্ব্বতোভাবে উত্তম বলিয়। বোৰ হয় না । কারণ প্রায়ই দেখিতে পাওয়া যায় যে, বালকের দিবস কতিপয় মধ্যেই ঐ সকল স্বত্রগুলি সম্পূর্ণরূপে বিস্মৃত হইয়া যায়, অন্ততঃ অনেকশনেক স্থলে তাহাদিগের অভ্যাস ‘পাপড়ি ভtঙ্গ’ হইয় থাকে । বিশেষতঃ ৰিজাতীয় পরিমাণ স্বত্র গুলি পূনঃ২ বিস্মৃত হইতে হয় । এই সকল দোষ নিবারণার্থে হলগু দেশের বিদ্যালয় সমূহে যে রীতি প্রচলিত অাছে তাহ অবলস্বন করা বিধেয় বোধ হয় । যদি কেহ সেই রীতি গ্রহণ করিয়া দেখেন, তাহ হইলেই উহার সমগ্র ফল উপলব্ধ হইবেন । হলণ্ডের বিদ্যালয় সকলে তদেশ প্রচলিত पूजा এবং পরিমাণ সমস্ত দেখাইয়া বালকদিগকে সেই গুলির মাম বলিয়া দেওয়া যায় এবং তাহারা ঐ সকুল পরিমাপের তারতম্য আপনার পরীক্ষণ করিয়া শিখিয় থাকে । যদি আমাদিগের দেশ-প্রচলিত কতিপয় মুদ্রণ এবং পরিমাণ পাঠশাল সমস্তে রাখা যায় এবং বালকের $