পাতা:শিখগুরু ও শিখজাতি.pdf/১০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শিখগুরু ও শিখজাতি ج ما ছিলেন। সপ্তদশ শতাব্দীর মধ্যভাগে তাহার কোনো এক পূৰ্ব্বপুরুক মহাত্মা মানকের উদার ধৰ্ম্মক হিনী শ্রবণ করিয়া উক্ত ধৰ্ম্ম গ্রহণ করেন । মৃত্যুশয্যায় তিনি তাহার একমাত্র শিশু-পুত্রকে শিখ ধৰ্ম্মশাস্ত্র আলোচনা করিবার নিমিত্ত আদেশ করিয়া যান । পুত্র পরিণতবয়সে স্বৰ্গীয় পিতার আদেশ স্মরণ করিয়া শিখধৰ্ম্ম গ্রহণ করিয়াছিলেন। কিন্তু তিনি প্তাহার ধৰ্ম্মশীল জনকের স্তায় শিষ্টপ্রকৃতির লোক ছিলেন না; অমৃতসর হইতে পান্থল গ্রহণ করিয়া ফিরিয়া আসিয়া অল্পদিন মধ্যেই তিনি এক দসু্যদলে প্রবেশ করেন । পশু-অপহরণ র্তাহার ব্যবসায় হইল ! শেষশুরু গোবিন্দসিংহের সৈন্যদলে প্রবেশ করিয়া তিনি দাক্ষিণাত্যে গমন করিয়াছিলেন । যুদ্ধক্ষেত্রে বীরত্ব দেখাইয়া তিনি কিঞ্চিৎ খ্যাতি অর্জন করিয়াছিলেন। যুদ্ধান্তে স্বগ্রামে ফিরিয়া আদিবার পর গ্রামবাণীরা তাহাকে আপনাদের দলপতি মনোনীত করেন । ১৭১৬ খৃষ্টাকে তাহার মৃত্যু হয়। র্তাহার জ্যেষ্ঠপুত্র পিতার স্থায় দমাবৃত্তি অবলম্বন করিয়া প্রভূত সম্পত্তির অধিকারী হইলেন । ১৭৪৮ খৃষ্টাব্দে প্রথম আফগান-আক্রমণের সময়ে তিনি এক মিশলে প্রবেশ করেন । ১৭৫২ খৃষ্টাবো যুদ্ধক্ষেত্রে তাহার মৃত্যু হয় । . তাহার পুত্র সুরথ সিংহ রণজিতের পিতামহ । উত্তরাধিকারিত্বস্বত্রে মুরথ ৯ বিঘ ভূমি ও একটি জলাশয় পাইয়াছিলেন। দেড়শত অশ্বারোহী সৈন্ত তাহার অধীন ছিল। এই সৈন্যদলকে সহায় করিয়া তিনি তাহার অধিকার বাড়াইয়া তুলিতেছিলেন। তিনি পিওানখী, মুণখানা প্রভৃতি কতকগুলি জনপদ অধিকার করেন। অবশেষে দ্বিতীয় এক শক্তিশালী সহযোগীর সহিত মিলিত হইয়া তিনি একটি স্বাধীন শাখা-সম্প্রদায় গঠন করেন। স্কুরখের বাসগ্রামের নামানুসারে ঐ মিশলটির নাম “ মুক্ষরচুকিয় হুইল