পাতা:শিখগুরু ও শিখজাতি.pdf/১১৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఫి শিখগুরু ও শিখজাতি পারিলেন । এই সময় হইতে র্তাহার বিজয়কাৰ্য্য অব্যাহতগতিতে চলিতেছিল । # একে একে শিখদঃপতিদিগকে স্ববশে আনয়ন করিবার নিমিত্ত রণজিৎ সচেষ্ট হইলেন । রামঘোরিয়া মিশলের সর্দার জসাসিংহ বাৰ্দ্ধক্য-হেতু অক্ষম হইয় পড়িয়াছিলেন । তিনি জানিতেন যে, অদূরবর্তী ভবিষ্ণুতে এই শাখাসম্প্রদায় তাeার শাসনাধীন হইবে। জসার মৃত্যুর পরে তাহার জ্যেষ্ঠপুত্র যোধসিংহ বিনা যুদ্ধে রণজিতের আনুগত্য স্বীকার করেন । বোধসিংহ অকালে মৃত্যুমুখে পতিত হন। তাহার মৃত্যুর পরে সম্পত্তি লইয়া উত্তাধিকারীদের মধ্যে বিরোধ চলিতেছিল । তখন ১৮৯৮ খৃষ্টাব্দে রণজিৎ রামঘোরিয়া-নায়ক দেওয়ানসিংহ ও বীরসিংহকে বন্দী করিয়া তাহীদের অধিকৃত প্রদেশ স্বরাজ্য ভূক্ত করেন । তিনি রামগোরিয়াদের অধিকারভুক্ত প্রায় ১০৮টি দুর্গ ধ্বংস করেন । কয়েক মাস পরে বীরসিংহ ও দেওয়ানসিংহকে মুক্তিদান করিয়া তিনি তাহাদিগকে কিঞ্চিৎ বৃত্তি দিয়াছিলেন । ১৮০২ খৃষ্টাব্দে রণজিৎ মুকিয়া-সর্দারের এক কন্যাকে বিবাহ করেন । এই বৈবাহিক সম্বন্ধ উভয় মিশলের শক্রতা দূর করিতে পারে নাই। ১৮০৭ খষ্টাকে সর্দার খ সিংহ এই শাখাসম্প্রদায়ের দলপতি নিযুক্ত হন । মহারাজ রণজিৎ তাহাকে আপন সভাসদ হইবার নিমিত্ত আহবান করেন। নূতন নুকিয়াসর্দার আপনাকে পদ-গৌরবে রণজিতের অপেক্ষ কোনো অংশে হীন বলিয়া স্বীকার করিতে কুষ্ঠিত ছিলেন, তিনি ম্পৰ্দ্ধাসহকারে রণজিতের আহ্বান অগ্রাহ করেন। বীরবর রণজিৎ প্রকাগু যুদ্ধে নুকিয়-সর্দারকে পরাজিত করিয়া তাহার শাসনাধীন স্থানগুলি স্বরাজ্যভূক্ত করিয়া লইলেন । ১৮১১ খৃষ্টাব্দে মহারাজ রণজিৎ ফইস্কুলপুরিয়া মিশলের সর্দায়