পাতা:শিখগুরু ও শিখজাতি.pdf/১২৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> o. o শিখগুরু ও শিখজাতি রাজ্যপ্রসার বিপজ্জনক মনে করিয়া ধীরপ্রকৃতি লর্ড কর্ণওয়ালিসকে গবর্ণর জেনারেল নিযুক্ত করিয়া পাঠাইলেন । নূতন গবর্ণর জেনারেল হোল্কারের সহিত সন্ধি করিলেন । মহারাজ রণজিতের সহিতও মৌখিক চুক্তি হইয়া রহিল যে, তিনি হোল্কারকে কোনোরূপ সাহায্য করিবেন না । ইংরাজ গবর্ণমেণ্ট প্রতিশ্রত রছিলেন যে, রণজিৎ ইংরাজের শত্রুপক্ষের সহিত যোগদান না করিলে, তাহার কথনে। শিখরাজ্য আক্রমণ করিবেন না। পূৰ্ব্বোক্ত সৰ্ত্তে রণজিতের রাজ্যবিস্তরকল্পনা কিঞ্চিৎ বাধাপ্রাপ্ত হইল। শতদ্রুর উভয়তীরের শিখদিগকে এক শাসনস্থত্রে বাধিয়া । তিনি অথও স্বাধীনরাষ্ট্র-গঠনে অভিলাষী হইয়াছিলেন, তাহার এই মনোবাঞ্ছা পূর্ণ হইবার পথে ইংরাজগবর্ণমেণ্ট অন্তরায় হইয়া দাড়াইলেন। শতদ্রুর দক্ষিণতীরে রাজ্যবিস্তারবাসন রণজিৎ একেবারে পরিত্যাগ করিতে পারিলেন না। ১৮৯৬ খৃষ্টাব্দে যখন পাতিয়ালার মহারাজের সহিত ঝিন্দের রাজার বিরোধ উপস্থিত হয়, তখন সেই বিবাদ মিটাইয়া দিবার জন্য রণজিৎ "মধ্যস্থরূপে আহত হইয়াছিলেন । , তিনি সসৈন্তে শতদ্রু অতিক্রম করিলেন জানিয়া ইংরাজেরা কিঞ্চিৎ, চিন্তিত হইয়া পড়িয়াছিল, গবর্ণমেণ্ট কারনালের সৈন্তবল বৃদ্ধি করিলেন। । রণজিৎ এই সময়ে কতগুলি স্থান অধিকার করিয়া আপনার অনুগত বন্ধুদের মধ্যে ভাগ করিয়া দিয়াছিলেন। পরবৎসরও তিনি সসৈন্তে পাতিয়ালায় গমন করিয়াছিলেন । এবারেও ফিরিবার সময়ে তিনি দুই একটা স্থান জয় করিয়া সহচরদিগকে প্রদান করেন । শতক্রর দক্ষিণ তীরের নায়কগণ বুঝিতে পারিলেন যে, রণজিৎ তাহাদের রাজ্য যেমন করিয়া হউক গ্রাস করিতে অভিলাষী হইয়াছেন,