পাতা:শিখগুরু ও শিখজাতি.pdf/১৬৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 a শিখগুরু ও শিখজাতি জন্ত দেশে শান্তির প্রতিষ্ঠা হইল বটে, কিন্তু তাহ স্থায়ী হইল না । সৈন্যদল তাহদের পশুবলের আস্বাদন পাইয়া বুঝিতে পারিয়াছিল যে, তাহাদিগকে শাসন করিতে পারে এমন কোনো শক্তি দেশমধ্যে নাই, সুতরাং ত্যহাদের স্পৰ্দ্ধিত মাথা কাহারে নিকট অবনত হইত না । সৈন্তবিভাগ হইতে সংযম ও বগুতা একবারে উঠিয়া গেল । মহারাজ সেরসিংহ তাহার পরলোকগত জনক রণজিতের পদাঙ্ক-নুসরণ করিয়া ইংরাজগবর্ণমেণ্টের সহিত বন্ধুত্ব অক্ষুণ্ণ রাখিয়াছিলেন। এই ইংরাজ-প্রতিই তাহার অকাল-মৃত্যুর কারণ হইয়া দাড়াইল । একবার তাহার বিরুদ্ধে এইরূপ গুজব প্রচারিত হইয়াছিল যে, তিনি ইংরাজ গবৰ্ণমেণ্টের আনুগত্য স্বীকার করিকেন। ১৮৪২ থষ্টাব্দে যখন ইংরাজসৈন্তের আফগানিস্থান হইতে প্রত্যাবৰ্ত্তনকালে পঞ্চনদপ্রদেশ অতিক্রম করিতেছিল, তখন শিখসর্দারের ইংরাজ-সৈঙ্গদিগকে আক্রমণ করিবার নিমিত্ত উত্তেজিত হইয়া উঠিয়াছিলেন । সে যাত্রা সের সিংহ তাহাদিগকে কোনোরূপে থামাইয়। রাখিয়াছিলেন বটে কিন্তু তাহার এই ইংরাজ-প্রতি শিখদিগকে এমন ক্রোধোন্মত্ত করিয়া ফেলিল যে, অচিরে সেরসিংহকে গোপনে হত্যা করিবার ষড়যন্ত্র হইতে লাগিল । অল্পদিনমধ্যে তিনি ও তাহার পুত্র পরিজন একে একে নিহত হইলেন ! বৃদ্ধ উজীর ধ্যানসিংহ ষড়যন্ত্রকারীদের অগ্রণী ছিলেন । সের সিংহের মৃত্যুর পরে রাজপদ লইয়া লাহোরে আবার বিরোধ উপস্থিত হইল। এই বিরোধের সময়ে ধ্যানসিংহ অত্যস্ত ক্ষমতাশালী হইয়া উঠেন। ষড়যন্ত্রকারীরা তাহার ভয়ে ভীত হইয় তাহাকেও হত্যা করিল। হত্যার পর হত্য চলিতে লাগিল ! ধান সিংহের পুত্র হীরা সিংহ পিতৃহত্যার প্রতিশোধগ্রহণ-মানসে যুগপৎ প্রলোভন ও ভয় দেখাইয়া সৈন্তদিগকে বশীভূত করিয়া কুচক্রাদিগকে নিহত করেন।