পাতা:শিখগুরু ও শিখজাতি.pdf/২৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


粉 শিখগুরু ও শিখজাতি প্রাচীন বর্বরতা ধুইয়া মুছিয়া স্বসভ্য হইয়া উঠিয়াছিল ; অথচ ইহার আপনাদিগের পূর্ব পিতামহগণের আচার হইতে সম্পূর্ণ ভ্ৰষ্ট হয় মাই • তাহাদের তেজ ও বীৰ্য্য ইহারা প্রচুরপরিমাণে লাভ করিয়াছে । ’ দ্বিতীয় অধ্যায় -سسسسه همسس سمته বাবা নানকের জীবনকথা, ইংরাজী ১৪৬ খ: জন্ধে, বাঙ্গল ৮৯২ সনে কাৰ্ভিক মাসের পূর্ণিমা তিথিতে লাহোরের অদূরবর্তী তালবণ্ডী নামক একটি ক্ষুদ্র গ্রামে মহাত্মা নানক জন্মগ্রহণ করেন। তাহার পিতা কালু বেদীৰংশীয় ক্ষত্রিয়, মাতার নাম ত্রিপতা। পিতা কালু জাতিতে জাঠ, কৃষি ও সামান্ত ব্যবসায় স্বারা জীবিকা উপার্জন করিতেন । স্বাভাবিক বৈরাগ্য লইয়াই মানক জন্মগ্রহণ করিয়াছিলেন । সাধারণত যে বয়সে শিশুরা খেলা ধূলার মাতিয়া থাকে, সেই স্বকুমার বয়সেই নানক চিন্তাশীল, মিতভাষী ও উপাসনা-পরায়ণ ছিলেন। র্তাহার বুদ্ধিবৃত্তি শৈশবেই বিকাশপ্রাপ্ত হইয়াছিল। পাচ বছর বয়সে তিনি গ্রামের শিক্ষক গোপাল পাধর পাঠশালায় প্রেরিত হন। সেই শিশুবয়সেই তিনি “ঈশ্বর আছেন তাহার প্রমাণ কি ?’ ইত্যাদি রূপ জটিল তত্ত্বমূলক প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করিয়া পাঠশালার শিক্ষক মহাশয়কে হতবুদ্ধি করিয়া ফেলিতেন। পাঠশালার লেখা পড়া শেষ করিয়া নানক