পাতা:শিখগুরু ও শিখজাতি.pdf/৯৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


* 8 শিখগুরু ও শিখজাতি করিতে লাগিল। এক একজন শক্তিশালী সর্দারের অধীনে শিখেরী দল-বদ্ধ হইয়া ছোট ছোট সম্প্রদায় গড়িয়া তুলিতে লাগিল। দেশের শাসন শৈথিলা এই সম্প্রদায়গুলিকে প্রবল করিয়া দিতেছিল। প্রাদেশিক শাসনকৰ্ত্তার সুযোগ পাইলেই জাঠ-কৃষকদিগের উপর উৎপীড়ন করিতেন। উৎপন্ন শস্তে কৃষকদের জঠর-জাল মিবারিত হইত না । কাজেই এই অরাজকতার দিনে নিরশ্ন কৃষককুল শক্তিশালী নায়কদিগের অধীনতা স্বীকার করিয়া তাহাদের সহিত মিলিত হইয়া লুণ্ঠন ব্যবসার গ্রহণ করিল। ১৭৩৮ খৃষ্টাব হইতে আফগানের পঞ্চনদপ্রদেশে তাহাদের শাসনাধিকার বিস্তারের নিমিত্ত চেষ্টা করিতে আরম্ভ করে। শিখেরা তাহার পূৰ্ব্বেই বহু সম্প্রদায়ে বিভক্ত হইয় পড়িয়াছিল। শক্তিশালী সর্দারদিগের অধীন এই ছোট ছোট দলগুলি * মিশল * নামে খ্যাত । - যে সকল দলপতির অধীনে শিথমিশলগুলি গড়িয়া উঠিয়াছিল, তাহাদের অধিকাংশই অধ্যাত কুলে জন্মগ্রহণ করিয়া আপন আপন সমর-নৈপুণ্যে ও বুদ্ধি-চাতুৰ্য্যে এক এক দল অশ্বারোহী সেনার নায়ক হইয়া উঠিয়াছিলেন । ইহাদের মধ্যে কেহ কৃষক, কেহ বা সামান্ত শিল্পী ছিলেন । লুণ্ঠন ও দস্থাত স্বারাই তাহারা আপনাদের অর্থসম্পং ও ভূসম্পত্তি বাড়াইয়া তুলিতেন । মিশলের সর্দারদের কোনো বিশেষত্বজ্ঞাপক আখ্যা ছিল না । তাহারা সর্দার নামেই অভিহিত হইতেন । অধীন লোকদের উপর উtহাদের একাধিপত্য ছিল না ; শাসনপ্রণালী মোটামুটি প্রজাতন্ত্রেয় অনুরূপ ছিল । প্রত্যেক শিথই স্বাধীন এবং প্রত্যেকেরই ক্ষমত। সমান। মিশলের প্রত্যেক শিখ বিজিতরাজ্যের অংশ ও লুষ্টিতধনের ভাগ পাইত। দলপতির যুদ্ধক্ষেত্রে তাহদের চালক এবং বিবাদ