প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/২২৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


૨૨૮ • শেষ প্রশ্ন হরেন্দ্ৰ কহিল ক্ৰট । .* কমল কহিল, সে তো আপনার বন্ধু অক্ষয় বাৰু। শিবনাথ গুণী মানুষ, তার বিরুদ্ধে আমার কিন্তু নিজের খুব বেশি নালিশ নেই। নালিশ করেই বা লাভ কি ? হৃদয়ের আদালতে একতরফা বিচারই একমাত্র বিচার, তার তো আর আপিল কোর্ট মেলেনা। {} হরেন্দ্র জিজ্ঞাসা করিল,"তার মানে ভালবাসার অতিরিক্ত আর কোন বাধনই আপনি স্বীকার করেননা ? কমল কহিল, একে তো আমাদের ব্যাপারে আর কোন বাধন ছিলনা, আর থাকলেই বা তাকে স্বীকার করিয়ে ফল কি ? দেহের যে অঙ্গ পক্ষাঘাতে অবশ হয়ে যায় তার বাইরের বঁাধনই মস্ত বোঝা । তাকে দিয়ে কাজ করাতে গেলেই সব চেয়ে বেশি বাজে। এই বলিয়া একমুহূৰ্ত্ত নীরব থাকিয়া পুনরায় কহিতে লাগিল, আপনি ভাবটেন সত্যিকার বিবাহ হয়নি বলেই এমন কথা মুখে মানতে পারচি, হলে পারতাম না। হলেও পারতাম, শুধু এত সহজে এ সমস্তার সমাধান পেতামনা । বিবশ অঙ্গটা হয়ত এ দেহে সংলগ্ন হয়েই থাকতো, এবং অধিকাংশ পমণীর যেমন ঘটে, আমরণ তার দুঃখের বোঝা বয়েই এ জীবন কাটতো । আমি বেঁটেNগছি হরেনবাবু, দৈবাৎ নিষ্কৃতির দোর খোলা ছিল বলে আমি মুক্তি পেয়েছি। o ইরেন্দ্ৰ কহিল, আপনি হয়ত মুক্তি পেয়েছেন, কিন্তু এম্নিধারা মুক্তির স্বার যদি সবাই খোলা রাখতে চাইতো জগতে সমাজ-ব্যবস্থার বোনেদ পৰ্য্যন্ত উপড়ে ফেলুতে হোতো । তার উয়ঙ্কর মূৰ্ত্তি কল্পনায় আঁকৃতে পারে এমন কেউ নেই। এ সম্ভাবনা ভাবাও যায়না । কমল বলিল, যায়, এবং যাবেও একদিন । তার কারণ মানুষের ইতিহাসের শেষ অধ্যায় লেখা শেষ হয়ে যায়নি। একদিনের একটা (t