পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/৩০২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৯৭ • - • শেষ প্রশ্ন ঠাকুরপো, কাপড় ছাড়ো। এই বলিয়া সে জামা-কাপড় হরেস্ত্রের * হাতে দিল । আগুবাবু চুপ করিয়া রহিলেন। হরেন্দ্ৰ কহিল, কাপড় দিলেন দু’টো, কিন্তু জামা যে একটি । so জামাটা মস্ত বড় ঠাকুরপো, একটাতেই হবে, বলিয়ু গম্ভীর হইয়া পাশের চৌকিটায় উপবেশন করিল। হরেন্দ্র বলিল, জামাটা আশুবাবুর, সুতরাং, দু’জনের কেন, আরও জন-চারেকের হতে পারে, কিন্তু সে মশারির মত খাটাতে হবে, গায়ে দেওয়া চলুবেনা। • বেলা এতক্ষণ শুষ্ক বিষঃ-মুখে নীরবে বসিয়াছিল, হারি চাপিতে না পারিয়া উঠিয়া গেল ; এবং নীলিমা জানেলার বাহিরে চাহিয়া চুপ করিয়া রহিল। " আশুবাবু ছদ্ম-গাম্ভীর্য্যের সহিত কহিলেন, রোগে ভুগে আধখানি হয়ে গেছি হে হরেন, আর খুড়োনা 7-দেখচোন মেয়েদের কি রকম ব্যথা লাগলো। একজন সইতে না পেরে উঠে গেলেন, আর একজন রাগে মুখ ফিরিয়ে রয়েছেন। হরেন্দ্ৰ কহিল, খুড়িনি আশুবাবু, বিরাটের মহিমা কীৰ্ত্তন করেছি। খোড়াখুড়ির দুষ্প্রভাব শুধু আমাদের মত নর-জাতিকেই বিপন্ন করে, আপনাদের স্পর্শ করতেও পারেনা। অতএব, চিরস্তু য়মান হিমাচলের স্তায় ও-দেহ অক্ষয় হোক, মেন্ধেরা নিঃশঙ্ক হোন, এবং জল-বৃষ্টির ছুতানতায় ইতর-জনের ভাগ্যে দৈনন্দিন মিষ্টাক্সর বরাদে আজও যেন তাদের বিন্দুমাত্রও নু্যনত না ঘটে। . নীলিমা মুখ তুলিয়া হাসিল, কহিল, বড়দের অতিবাদ ত্বে আবহমানকাল চলে মালটে ঠাকুরপো, সেইটেই নির্দিষ্ট ধারা এবং, তুতে তুমি