প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/৩২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩২১” • শেষ প্রশ্ন সূৰ্য্য অস্ত গেছে ব’লে সেই অন্ধকারটাই হবে সত্যি, আর কাল প্রভাতে ' আলোয়-আলোয় আকাশ যদি ছেয়ে যায়, দু'চোখ বুজে তাকেই বলবো এ আলো নয়, এ মিথ্যে ? জীবনটাকে নিয়ে এম্‌নি ছেলেখেলা করেই কি সাঙ্গ ক’রে দেবো ? Q বোললাম, রাত্রি ভো কেবল একটি মাত্রই নয় কমল, প্রভাতের আলো শেষ কোরে সে তো আবার ফিরে আসতে পারে ? সে বললে, আসুক না । তখনও ভোরের বিশ্বাস নিয়েই আবার রাত্র যাপন কোরবো । বিস্ময়ে আচ্ছন্ন হয়ে বসে রইলাম,—কমল চলে গেল। , ছেলেখেলা ! মনে হয়েছিল শোকের মধ্যে দিয়ে আমাদের উভয়ের ভাবনার ধারা বুঝি গিয়ে একশ্রোতে মিশেছে। দেখলাম, না, তা নয় | আকাশ-পাতাল প্রভেদ । জীবনের অর্থ ওর কাছে স্বতন্ত্র,— আমাদের সঙ্গে তার কোথাও মিল নেই। অদৃষ্ট ও মানেনা, অতীতের স্বতি ওর স্বযুধুের পথ রোধ করেন ; ওর অনাগত তাই—যা আজও এসে পৌছোয়নি। তাই ওর আশাও যেমন দুৰ্ব্বার, আনন্দও তেমনি অপরাজেয় । আর একজন কেউ ওর জীবনকে ফাকি দিয়েছে বলে সে নিজের জীবনকে ফঁাকি দিতে কোন মতেই সন্মত নয় । সকলেই চুপ করিয়া রহিল। উদগত দীর্ঘশ্বাস চাপিয়া লইয়া আগুধাবু পুনশ্চ কহিলেন, আশ্চৰ্য্য মেয়ে! সেদিন বিরক্তি ও মাক্ষেপের অবধি রইলনা, কিন্তু এ কথাও তো মনে মনে স্বীকার না-করে পারলামনা যে, এ তো কেবল বাপের কাছে শ্বেখ মুখস্থ বুলিই নয়। যা’ শিখেচে একেবারে নিঃসংশয়ে একান্ত করেই শিখেচে । কতটুকুই বা বয়েল, কিন্তু নিজের মনটাকে যেন ও এই বয়সেই সম্যক উপলব্ধি করে নিয়েছে। ·文>