প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/৩৫৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষ প্রশ্ন ' రి(S কিন্তু তর্কের জন্যে নয়, শিক্ষার্থী হিসেবে গোটাকয়েক প্রশ্ন যদি করি তার কি উত্তর পাবোনা ? কিন্তু আজ আমি বড় শ্রান্ত সতীশবাবু। সতীশ এ আপত্তি কানে তুলিলনা, বলিল, হরেনদা এইমাত্র তামাসা কোরে বললেন আমি কাশী ফেরৎ যত উচুতেই উঠে থাকি, তার চেয়েও উচু যায়গা সংসারে আছে। সে এই ঘর। আমি জানি, আপনার প্রতি ওঁর শ্রদ্ধার অবধি নেই,—আশ্রম ভাঙলে ক্ষতি হবেনা, কিন্তু আপনার কথায় ওঁর মন যদি ভাঙে সে লোকসান পূর্ণ হওয়া কঠিন । কমল চুপ করিয়া রহিল । সতীশ বলিতে লাগিল, রাজেনকে আপনি ভালো করেই জানেন, সে আমার বন্ধু। মূল বিষয়ে মতের মিল না থাকৃলে আমাদের বন্ধুত্ব হতে পারতোনা. তার মতো ভারতের সর্বাঙ্গীন মুক্তির মধ্যে দিয়ে স্বজাতির পরম কলম্বণ আমারও কাম্য । এরই আশায় ছেলেদের সঙ্ঘবদ্ধ কোরে আমরা গড়ে তুলতে চাই। নইলে মৃত্যুর পরে কল্প-কাল বৈকুণ্ঠ-বাসের লোভ আমাদের নেই। কিন্তু নিয়মের কঠোর বন্ধন ছাড়া তো কখনো সভ্য স্বষ্টি হয়না । আর শুধু ছেলেরাই তো নয়, সে বন্ধন আমরা নিজেরাও যে গ্রহণ করেচি। কষ্ট ওখানে আছে,—থাকৃবেই তো । বহু শ্রম কোরে বৃহৎ বস্তু লাভ করার স্থানকেই তো আশ্রম বলে। তাতে উপহাসের তো কিছু নেই! জবাব না পাইয়া সতীশ বলিতুে লাগিল, হরেনদার আশ্রম যাই হোকু না কেন, সে সম্বন্ধে আমি আলোচনা কোরবনা, কারণ, সেটা ব্যক্তিগত হয়ে পড়ার ভয় আছে। কিন্তু ভারতীয়-আশ্রমের মধ্যে যে ভারতের অতীতের প্রতিই নিষ্ঠ ও পরম শ্রদ্ধা আছে এতে অস্বীকার করা যায়না । ত্যাগ, ব্রহ্মচৰ্য্য, সংযম এ সকল শক্তিহী#ৰুরুষের ধর্ম