পাতা:শ্রীমদ্‌ভগবদ্‌গীতা-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১০০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


शिखैौध्र प्रशriब्र । bro ও অব্যয়। কাজেই কেছই ইছার ৰিনাশসাধৰ করিতে *jiरब्र मॉ ॥ এক্ষণে, এই কথায় দ্বারা আর কয়েকট কখ স্থচিত হইতেছে। সেই সকল কথা হিন্দুধর্শ্বের স্থল কথা, এজন্ত এখানে তাহার উত্থাপন করা উচিত্ত । প্রথমতঃ, এই শ্লোকের দ্বার সিদ্ধ হইতেছে, যে ঈশ্বর নিরাকার, সাকার হইতে পারেন না । যাক সাকার, তাহা সৰ্ব্বব্যাপী হইতে পারে না । সাকার ইন্দ্রিয়াদির গ্ৰাহ । আমরা জানি যে ইক্রিয়াদির গ্রাহ সাকার সৰ্ব্বব্যাপী কোন পদার্থ নাই। অতএব ঈশ্বর যদি সৰ্ব্বব্যাপী হয়েন, তবে তিনি সাকার লছেন। ঈশ্বর সাকার নহেন, ইহাই গীতার মত । কেবল গীতার নহে, হিন্দুশাস্ত্রের এবং হিন্দুধৰ্ম্মের ইহাই সাধারণ মত। উপনিষৎ এবং দর্শনশাস্ত্রের এই মত । সে সকলে ঈশ্বর সর্বব্যাপী চৈতন্ত বলিয়া নির্দিষ্ট হইয়াছেন। সত্য বটে, পুরাণেতিহাসে ব্ৰহ্মা বিষ্ণু মহেশ্বর প্রভৃতি সাকার চৈতন্ত কল্পিত হইয়া অনেক স্থলে ঈশ্বরস্বরূপ উপালিত হইয়াছেন । যে কারণে এইরূপ ঈশ্বরের রূপকল্পনার প্রয়োজন বা উদ্ভব হুইয়াছিল, তাহার অনুসন্ধানের এস্থলে প্রয়োজন নাই । কেবল ইহাই বক্তব্য যে পুরাণেতিহাসে শিবাদি সাকার বলিয়। কথিত হইলেও, পুরাণ ও ইতিহাসকারের ঈশ্বরের সাকীরতা প্রতিপন্ন করিতে চাহেল না, ঈশ্বর যে নিরাকার তাছ। কখনই ভুলেন না । পুরাণেতিহাসেও ঈশ্বর নিরাকার । একটা উদাহরণ দিলেই আমার কথার তাৎপৰ্য্য বুঝা যাইবে । বিষ্ণুপুরাণের প্রজলালচরিত্র ইহুৱে উদাহরণস্বরূপ গ্রহণ কঞ্জ