পাতা:শ্রীশ্রীকৃষ্ণকালীপদাবলী.pdf/২২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৬
শ্রীশ্রীকৃষ্ণকালী-পদাবলী।

অন্নপূর্ণা হয়ে এলে, অন্নদানে বাঁচাইলে,
নামেতে গৃহিণী ছিলে, কামে কিন্তু চেনা গেছে॥
(আমায়) নিতান্ত নিৰ্ব্বোধ পেয়ে, দেখ্‌ছ মজা সাজা দিয়ে,
রঙ্গময়ী তুমি মেয়ে, (এবার) রঙ্গ কি সাঙ্গ হয়েছে॥
কত সাজে সাজা দিলে, সম্বরো ও সব লীলে,
(একবার) শম্ভু-হৃদে পদ তুলে, স্বরূপটি দেখাও সরোজে।২৭॥

 


(বাউলে সুর)

গুর লও আমায় সেই দেশে, গুরু লও আমায় সেই দেশে;—
যে দেশের লোক খায় না শোয় না, কেবল কাঁদে কেবল হাসে।
যে দেশের লোক উল্‌টা বুঝে, মাঠ ছেড়ে খাস্‌ ভিটে চসে;
যে দেশে নাই বৰ্ষা বাদল, ফসল জালায় আপন রসে॥
যে দেশে গাছ উল্‌টা গজায়, পাতালে ডাল মূল আকাশে;
(তার) ফলগুলা কেউ খায় না ছোঁয়না,
(কেবল) ফুলের মধু সবাই চোষে
যে দেশে নাই চন্দ্ৰ সূৰ্য্য, আলো হয় ইলেক্‌ট্রিক্‌-গ্যাসে;
(সে ত) নয় সামান্য, আঁধার গণ্য
(ও তোর) ব্ৰহ্মাগ্নি সে আলোর পাশে
যে দেশের সব নদীনালা উজান চলে থির বাতাসে;
(তাহে) রাধা নামের বাদাম তুলে,
(কত) সাধু ডিঙ্গে যাচ্চে ভেসে
(এক্‌টা) এক্‌সেন্ট্রিক্‌ (eccentric) বাতুল বলে,
(ও মন) সেণ্টার (centre) কি তোর এই পরদেশে
(হেথা) ফুৎকারে কাল প্ৰাণটা লয়ে, কোঁৎকা মারে মাথায় ক’সে। ২৮