প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:সিক্ত সিঁথি দুরন্ত শ্রাবণ.pdf/৪৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আত্মীয় করুণ এক পরিচিত নদী আমার মোহানা ঘিরে আনে এক নিবিড় আনতি, — স্রোত বয়ে যায়— কথা তার কানে কানে আমাকে শোনায় দু’একটি চেনা-প্রশ্ন : ভালো তো !—নরম নিবিড় সুস্নিগ্ধ চোখে সে শুধোয় তারই মতন। আর কিছু নেই, নেই দিন-অবসিত নিয়ত সন্ধ্যার পাত্রে সোনার অমৃত, যদি বা কখনো কোনো বিকেলের চায়ের বাটিতে সোনালী ধোয়ায় মেশা দুদণ্ডের কথার দ্বৈতে কাটাই বিরলক্ষণ, সে ভুঞ্জন সতর্ক ; উদ্যত সংসার দু'দিন থেকে দু’জনকে টানে অবিরত : জোনাকির মত সেই ছোটোছোটো ঝিলিমি{ল ক্ষণ ংগ্রহ যতই করি হয় না চয়ন কোনো এক চয়নিক ;–হয় না বলেই ছোটোছোটো কবিতাকে অক্ষম মিলেই আপাত সাজিয়ে রাখি, স্থলিত চরণ সে-ছন্দকে স্বগতই করি উচ্চারণ— এবং তোমার ও কাছে ; জীবনের মৃদুর্লভ যে ক'টি সময় পেয়েছি কবিতা-ভরা, মমতার নিবিড় অন্বয় দেখেছি সে সব শূন্ত, নম্র হাতে দিয়েছে ভরিয়ে জীবন হয়েছে পূর্ণ সে অপূর্ব অপূর্ণ কুড়িয়ে। চল্লিশ