প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:সিমার - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/৮৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দুহাত প্রসারিত করে ভুল লক্ষে স্পর্শ খুঁজে ফেরা । তাই এখন নিজেকে ক্রুদ্ধ করে তুলছে রাবেয়া । এ এক আশ্চর্য বেপরোয়া ক্ৰোধ নিজেরই মধ্যে দংশন করছে। নিজেকে রক্তাক্ত করে তুলতে এত বড় নিষ্ঠা কেউ কখনো ভাবতে পারে की । বুকে ধরে রাখা একটি হালকা প্যাকেট আমাব দিকে এগিয়ে দিয়ে রাবেযা বললে, নাও । ফুলের প্যাকেটটা তুমি নাও । হাতটা প্রসারিত কবতেই চেয়ে দেখলাম। এই প্রথম হাতের তালুতে মেহেদির নকশা । এতক্ষণ লক্ষ হয়নি কেন ভেবে আশ্চর্য হলাম । মেহেদির রঙে ছোপানো হাত পাতলা সুরভিতে কামাের্ত দেখায় । জানতে চেয়ে বলি, আজ তোমার সবই কেন যেন ইয়ে মনে হচ্ছে। কী ব্যাপার গো ? কী উৎসব আজ ? হাতে মেহেদি লাগিয়েছ। কখন ? --তুমি কলেজে চলে আসার পর, ফুলমতিব এনে দেয়া বঙের নিযাস, সাধ হলো ! বেটে লাগিয়ে দিলাম । মনে পড়ে ? -की ? --সেই যে সেবার তুমি হায়ার সেকেণ্ডারি পাশ করলে, রেজাল্টের দিন তোমার পড়ার ঘরে দেখা করতে এলাম, ভাবীর নতুন বেনারসী পরে, হাতে মেহেদি । অন্যমনস্ক হয়ে বললাম, হবে । -হবে কি গো ! দিব্যি সেই সব মনে পড়ছে আমার ! -ी गदा ? --সেই যে তুমি হাতখানা হাতের মুঠোয় তুলে নিলে । མཚམས་རྒྱi55 --তালুতে মুখ নামিয়ে নিশ্বাসে গন্ধ টানলে । বললে, কী মিষ্টি ।-মেহেদির গন্ধ সত্যি তোমার ভালো লাগে ? -की छानि ! -qई। छूधि किलू अन्ण कथा उादछ ? --মেহেদি বোধ হয় কোনো কিছুর প্রতীক । -কিসের ? -জানি নে ঠিক । সানাইয়ের সুর আর মেহেদির ব্ৰাণ, কোথায় একটা মিল अर्थ ! --তুমি মস্ত কবি । হয়তো খানিক পাগলও বটে । এ-সবের কোনো মানে আছে ? --তুমি একটা মানে চাইছ বলে মনে হচ্ছে । ? ofآس brb”