পাতা:সিরাজদ্দৌলা - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/২১৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
২০১
ক্লাইবের প্রথম ও শেষ পত্র।

মাদ্রাজের ইংরাজ দরবারের অনুরোধ রক্ষার্থে দাক্ষিণাত্যের নিজাম এবং আরকটের নবাব বাহাদুর সিরাজদ্দৌলাকে যে পত্র লিখিয়া পাঠাইয়াছিলেন, তাহার মধ্যে অন্ধকূপ-হত্যার উল্লেখ নাই। মাদ্রাজদরবারের সর্ব্বময় কর্ত্তা শ্রীল শ্রীযুক্ত পিগট সাহেব বাহাদুর সিরাজদ্দৌলার নিকট তর্জ্জনগর্জ্জনপূর্ণ পত্র লিখিয়া কর্ণেল ক্লাইবকে বঙ্গদেশে পাঠাইয়া দিয়াছিলেন;—তাহার মধ্যেও অন্ধকূপ হত্যার উল্লেখ নাই। ক্লাইব এবং ওয়াট্‌সন্ বঙ্গদেশে শুভাগমন করিয়া পলাশিযুদ্ধের অব্যবহিত পূর্ব্ব পর্য্যন্ত সিরাজদ্দৌলাকে যত সুতীব্র সামরিক লিপি লিখিয়াছিলেন, তাহার মধ্যে অন্ধকূপ হত্যার উল্লেখ নাই! সিরাজদ্দৌলার সঙ্গে ইংরাজদিগের যে আলিনগরের সন্ধি সংস্থাপিত হয়, তাহার মধ্যেও অন্ধকূপ-হত্যার উল্লেখ নাই।[১]

 কলিকাতার পুনরুদ্ধারকল্পে যাঁহারা একে একে মাদ্রাজ হইতে বঙ্গদেশে শুভাগমন করিয়াছিলেন, তাঁহারা সকলেই নবাব সিরাজদ্দৌলাকে পত্র লিখিয়াছিলেন। অন্ধকূপ-হত্যা সত্য হইলে ইঁহাদের প্রত্যেকের পত্রেই সে কথার উল্লেখ দেখিতে পাওয়া যাইত। মেজর কিলপ্যাট্রিক

  1. আলিনগরের সন্ধিপত্রে অন্ধকূপ হত্যার উল্লেখ নাই বলিয়া একজন ইংরাজ ইতিহাসলেখক মর্ম্মবেদনায় লিখিয়া গিয়াছেন যে :—“No satisfaction was obtained for the atrocities of the Black Hole; and the absence of any provision for this purpose is the greatest scandal attached to the treaty. For this no sufficient apology can be found. Peace was desirable, but even peace is bought too dearly when the sacrifice of national honor is the price,”—Thornton's History of the British Empire, vol. I. 212-213.