পাতা:সিরাজদ্দৌলা - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/২৩৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
২১৯
ঢাকার হত্যাকাহিনী।

প্রধান প্রচারক, সেই হলওয়েলই মীরজাফরকে পদচ্যুত করিবার সময় ঢাকার হত্যাকাহিনী রচনা করিয়াছিলেন।[১] তিনি বিলাতের কর্ত্তৃপক্ষদিগের নিকট লিথিয়া পাঠাইয়াছিলেন যে,—“নবাব মীরজাফর খাঁর জঘন্য চরিত্রের কথা আর কি বলিব? তিনি ১৭৬০ খৃষ্টাব্দের জুন মাসে নওয়াজেস-মহিষী ঘসেটি বেগম, সিরাজ জননী আমিনা বেগম প্রভৃতি সম্ভ্রান্ত মহিলাবর্গকে ঢাকার রাজকারাগারে নিষ্ঠুরূপে হত্যা করাইয়াছেন!”[২] উত্তরকালে কলিকাতার ইংরাজ-দরবার অর্থাৎ হলওয়েলের স্বদেশীয় সহযোগিগণ এই হত্যাকাহিনীর তথ্যানুসন্ধান করিয়া লিখিয়া গিয়াছেন যে, হলওয়েলের হত্যাকাহিনী সর্ব্বৈব মিথ্যা।[৩] যিনি মীরজাফরের পদচ্যুতি সমর্থন করিবার জন্য মীরকাশিমের টাকা খাইয়া এমন মিথ্যা হত্যাকাহিনী রচনা করিয়া স্বজাতিসমাজে মিথ্যাবাদী বলিয়া পরিচিত হইয়াছিলেন, তিনিই অন্ধকূপ-হত্যাকাহিনী রচনা করিয়া গিয়াছেন! তাহাও যে এইরূপ সর্ব্বৈব মিথ্যাকাহিনী নহে, তাহার প্রমাণ কি?

  1. মীরজাফরকে পদচ্যুত করিয়া মীরকাশিমকে সিংহাসন দান করায় হলওয়েল সাহেব মীরকাশিমের নিকট তিন লক্ষ নয় হাজার তিন শত সত্তর টাকা পুরস্কার পাইয়াছিলেন!—Report of the Committee of the House of Commons, 1772
  2. Long's Selections from the Records of the Govt. of India, vol. I.
  3. In justice to the memory of the late Nabob Meer Jaffier, we think it incumbent on us to acquaint you that the horrible massacres wherewith he is charged by Mr. Holwell in his address to the proprietors of East India Stock (page 46) are cruel aspersions on the character of that prince, which have not the least foundation in truth. Letter to Court, 30 September, 1766, supplement.