পাতা:সিরাজদ্দৌলা - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/৩৪৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৩৩২
সিরাজদ্দৌলা

তাঁহার প্রিয়পুত্র মীরণের মস্তকে অকস্মাৎ বজ্রাঘাত হইয়াছিল! এরূপ কুসংস্কার কেবল আমাদিগেরই পৈতৃক সম্পত্তি নহে;—ক্লাইব যখন আত্মহত্যা করেন, তখন বিলাতের কত ভাল ভাল লােকেও বলিয়া উঠিয়াছিলেন যে, এত দিনে বিধাতার ন্যায়দণ্ডে সকল পাপের প্রায়শ্চিত্ত হইল।[১]

 এ দিকে সিরাজদ্দৌলা গুপ্ত সন্ধিপত্রের সন্ধান পাইয়া মীরজাফরকে কারারুদ্ধ করিবার আয়ােজন করিতে লাগিলেন। মীরজাফরের বাটীতে গােলাবারুদের অভাব ছিল না, সুতরাং তাঁহাকে কারারুদ্ধ করা সহজ হইল না! ওয়াট্‌স্ ইহার আভাস পাইয়া বায়ুসেবনের উপলক্ষ করিয়া সহযােগী সহযােগে রজনীমুখে অশ্বারােহণে পলায়ন করিলেন! তখন আর সিরাজদ্দৌলার ইতস্ততঃ রহিল না। তিনি তৎক্ষণাৎ সেনাপতি ওয়াট্‌সন্‌কে পত্র লিখিতে বসিলেন। ইহাই তাঁহার শেষ পত্র। তিনি লিখিলেন:—

“২৫ রমজান (১৩ই জুন ১৭৫৭)।

“আমরা যে সন্ধি সংস্থাপন করিয়াছিলাম, তাহার অঙ্গীকার পালনের জন্য ওয়াট্‌স্ সাহেবকে প্রায় সকল বস্তুই বুঝিয়া দিয়াছি। যৎসামান্য কিছু কিঞ্চিৎ বাকী থাকিতে পারে। মাণিকচাঁদের ব্যাপারও একরূপ শেষ করিয়াছিলাম। কিন্তু

  1. In the awful close of so much prosperity and glory, the vulgar saw only a confirmation of all their prejudices; and some, men of real piety and genius so far forgot the maxims both of religion and of philosophy as confidently to ascribe the mournful event to the just vengeance of God, and to the horrors of an evil conscience.—Macaulay's Lord Clive.