প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:সুকথা - দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/১৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
সুকথা

উপেক্ষা করিয়া কর্ত্তব্যনিষ্ঠ অধ্যবসায়ের সহিত পরদিন আবার তাঁহার কার্য্যে নিযুক্ত হইলেন।

 রাজসভা হইতে এই সময় দূত আসিয়া তাঁহাকে রাজসন্নিধানে লইয়া গেল। রাজা বিচারকবেশে সিংহাসনে উপবিষ্ট ছিলেন, তিনি মাতৃগুপ্তকে দেখিয়া সেই আদেশ-লিপিখানি তাঁহার হস্তে দিয়া বলিলেন, “তুমি এখনই কাশ্মীরাভিমুখে যাত্রা কর, কিন্তু সাবধান! এই পত্রখানি খুলিয়া পড়িও না, কাশ্মীররাজ্যের শাসনভারপ্রাপ্ত রাজকর্ম্মচারীর হস্তে এই পত্রখানি প্রদান করিও।”

 চারিদিকে লোক কাণাকাণি করিতে লাগিল, রাজা মাতৃগুপ্তের প্রতি কোন সুবিচারই করিলেন না, এত কষ্ট দিয়াও রাজা ইঁহার প্রতি সদয় হইলেন না, এখন কি না অতি হীন পত্রবাহকের