পাতা:সুকথা - দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/২৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৫
সুকথা

কর্ত্তৃক প্রকাশিত সেই সকল কীর্ত্তির ছবি দেখিয়া আমরা বিস্মিত হইয়া যাই। উড়িষ্যার নীলগিরিতে সুপ্রসিদ্ধ কোণার্ক মন্দির অতীতকীর্ত্তির অর্দ্ধ-ভগ্ন স্তূপমালা আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। কিন্তু এই সমস্ত ধ্বংসাবশেষ একত্র করিলে আমরা যাহা পাই, তাহা প্রাচীন সমৃদ্ধির অতি নগণ্য অংশ।

 যে সকল শিল্পী, ভাস্কর ও স্থপতিবিদ্যা-বিশারদ এদেশে জন্মগ্রহণ করিয়াছিলেন, তাঁহাদের নাম কোন ইতিহাসে লিপিবদ্ধ নাই। কখনও কোন শিল্পী কোন তাম্রফলকের নিম্নে বা প্রস্তরনির্ম্মিত বাসুদেব বিগ্রহের পশ্চাতে স্বীয় নামাঙ্কিত করিয়া রাখিয়াছিলেন, সেই চিহ্ন তাঁহাদিগকে পরিচিত করিতে পারে। নাই, তাহা সময়-স্রোতে ভাসিয়া গিয়াছে।