"গীতিমাল্য/২৩" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
{{শীর্ষক
|শিরোনাম=[[গীতিমাল্য../]] ২৩
|আদ্যক্ষর=আ
|অনুচ্ছেদ = আমারে তুমি অশেষ করেছ
|পূর্ববর্তী = ২২ [[কে গো অন্তরতর সে../২২/]]
|পরবর্তী = ২৪ [[হার মানা হার../২৪/]]
|টীকা = english [[Gitanjali]] poem I, [[Thou hast made me endless]]
|লেখক =রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
|বছর = ১৯১৪
|প্রবেশদ্বার =
 
}}
<pages index="গীতিমাল্য-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu" from=47 to=47/>
<div style="padding-left:20%;">
<poem>
 
আমারে তুমি অশেষ করেছ
এমনি লীলা তব ।
ফুরায়ে ফেলে আবার ভরেছ
জীবন নব নব ।
কত যে গিরি কত যে নদীতীরে
বেড়ালে বহি ছোট এ বাঁশিটিরে,
কত যে তান বাজালে ফিরে ফিরে
কাহারে তাহা কব ।
 
তোমারি এই অমৃতপরশে
আমার হিয়াখানি
হারাল সীমা বিপুল হরষে
উথলি উঠে বাণী ।
আমার শুধু একটি মুঠি ভরি
দিতেছ দান দিবসবিভাবরী,
হল না সারা কত না যুগ ধরি
কেবলি আমি লব ।
 
</poem>
শান্তিনিকেতন ৭ বৈশাখ ১৩১৯
</div>
 
<p style="margin-top:4em">
রবীন্দ্র রচনাবলী (পশ্চিমবঙ্গ সরকার শতবার্ষিকী সং) খণ্ড ২, পৃ ৩৩৫ (গীতিমাল্য ২৩) থেকে সংগৃহীত । গীতবিতানে যতিচিহ্ণ এবং পঙ্‌ক্তিবিন্যাসে সামান্য তফাত আছে।</p>
 
 
<pages index="গীতবিতান.djvu" from=2 to=2/>
 
[[বিষয়শ্রেণী:পূজা পর্যায়]]