"গল্পগুচ্ছ/রামকানাইয়ের নির্বুদ্ধিতা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

Muhammad (আলাপ) এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে Tarif Ezaz এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে
(Muhammad (আলাপ) এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে Tarif Ezaz এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে)
{{Header
|section title=রামকানাইয়ের নির্বুদ্ধিতা
|title=গল্পগুচ্ছ
|section =
|section =রামকানাইয়ের নির্বুদ্ধিতা
|previous =[[গিন্নি]]
|next =[[ব্যবধান]]
|notes =[[গল্পগুচ্ছ]]</br> ১২৯৮ বঙ্গাব্দ।
|author =রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর}}
<div style="padding-left:2em;font-size:1.3em">
 
যাহারা বলে, গুরুচরণের মৃত্যুকালে তাঁহার দ্বিতীয় পক্ষের সংসারটি অন্তঃপুরে বসিয়া তাস খেলিতেছিলেন, তাহারা বিশ্বনিন্দুক, তাহারা তিলকে তাল করিয়া তোলে। আসলে গৃহিণী তখন এক পায়ের উপর বসিয়া দ্বিতীয় পায়ের হাঁটু চিবুক পর্যন্ত উত্থিত করিয়া কাঁচা তেঁতুল, কাঁচা লঙ্কা এবং চিংড়িমাছের ঝাল-চচ্চড়ি দিয়া অত্যন্ত মনোযোগের সহিত পান্তাভাত খাইতেছিলেন। বাহির হইতে যখন ডাক পড়িল তখন স্তূপাকৃতি চর্বিত ডাঁটা এবং নিঃশেষিত অন্নপাত্রটি ফেলিয়া গম্ভীরমুখে কহিলেন, "দুটো পান্তাভাত যে মুখে দেব, তারও সময় পাওয়া যায় না।"
 
 
গৃহে ফিরিয়া আসিয়া রামকানাইয়ের কঠিন বিকার-জ্বর উপস্থিত হইল। প্রলাপে পুত্রের নাম উচ্চারণ করিতে করিতে এই নির্বোধ, সর্বকর্মপণ্ডকারী, নবদ্বীপের অনাবশ্যক বাপ পৃথিবী হইতে অপসৃত হইয়া গেল ; আত্মীয়দের মধ্যে কেহ কেহ কহিল "আর কিছুদিন পূর্বে গেলেই ভালো হইত"- কিন্তু তাহাদের নাম করিতে চাহি না।
</div>
 
[[Category:গল্পগুচ্ছরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর]]
[[Category:গল্প]]
৪,২৩৮টি

সম্পাদনা