সঞ্চয়িতা/হঠাৎ দেখা

দ্যামলী A S a তোমার ডাক শুনে একদিন ঘরপোষা নিজীব মেয়ে অন্ধকার কোণ থেকে বেরিয়ে এল ঘোমটাখস নারী । যেন সে হঠাৎ-গাওয়া নতুন ছন্দ বাল্মীকির, চমক লাগালো তোমাকেই । সে নামবে না গানের আসন থেকে ; সে লিখবে তোমাকে চিঠি রাগিণীর আবছায়ায় বসে । তুমি জানবে না তার ঠিকানা । ওগো বাশিওয়ালা, সে থাক তোমার রাশির স্বরের দূরত্বে ॥ শাস্তিনিকেতন ২ আষাঢ়, ১৩৪৩ হঠাৎ-দেখা রেলগাড়ির কামরায় হঠাৎ দেখা, ভাবিনি সম্ভব হবে কোনোদিন । আগে ওকে বারবার দেখেছি লালরঙের শাড়িতে দালিম ফুলের মতো রাঙা ; আজ পরেছে কালো রেশমের কাপড়, আঁচল তুলেছে মাথায় দোলনচাপার মতো চিকনগেীর মুখখানি ঘিরে । মনে হল, কালো রঙে একটা গভীর দূরত্ব ঘনিয়ে নিয়েছে নিজের চারদিকে, যে দূরত্ব শর্ষেখেতের শেষ সীমানায় শালবনের নীলাঞ্জনে ।