আমি চঞ্চল হে ,
আমি সুদূরের পিয়াসি ।
        দিন চলে যায় , আমি আনমনে
        তারি আশা চেয়ে থাকি বাতায়নে ,
        ওগো প্রাণে মনে আমি যে তাহার
              পরশ পাবার প্রয়াসী ।
              আমি সুদূরের পিয়াসি ।
ওগো সুদূর , বিপুল সুদূর , তুমি যে
                         বাজাও ব্যাকুল বাঁশরি ।
                 মোর ডানা নাই , আছি এক ঠাঁই ,
                         সে কথা যে যাই পাসরি ।

আমি উৎসুক হে ,
হে সুদূর , আমি প্রবাসী ।
        তুমি দুর্লভ দুরাশার মতো
        কী কথা আমায় শুনাও সতত ।
         তব ভাষা শুনে তোমারে হৃদয়
              জেনেছে তাহার স্বভাষী ।
              হে সুদূর , আমি প্রবাসী ।
ওগো সুদূর , বিপুল সুদূর , তুমি যে
                         বাজাও ব্যাকুল বাঁশরি ।
                 নাহি জানি পথ , নাহি মোর রথ
                          সে কথা যে যাই পাসরি ।

আমি উন্মনা হে ,
হে সুদূর , আমি উদাসী ।
        রৌদ্র - মাখানো অলস বেলায়
        তরুমর্মরে , ছায়ার খেলায় ,
        কী মুরতি তব নীলাকাশশায়ী
            নয়নে উঠে গো আভাসি ।
            হে সুদূর , আমি উদাসী ।
ওগো সুদূর , বিপুল সুদূর , তুমি যে
                     বাজাও ব্যাকুল বাঁশরি ।
                 কক্ষে আমার রুদ্ধ দুয়ার
                     সে কথা যে যাই পাসরি ।