প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অক্ষয়কুমার বড়াল গ্রন্থাবলী.djvu/২৩৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


& প্রার্থনা হঃখী বলে,—“বিধি নাই, নাহিক বিধাত ; চক্ৰ সম অন্ধ থর। চলে ।” সুখী বলে,—“কোথা হুঃখ, অদৃষ্ট কোথায় ? ধরণী নরের পদতলে ।” জ্ঞানী বলে,—“কাৰ্য্য অাছে, কারণ দুজ্ঞেয় ; এ জীবন প্রতীক্ষণ-কাতর।’ ভক্ত বলে,— ‘ধরণীর মহারাসে সদ। ক্রীড়ামত্ত রসিক-শেখর ।” ঋষি বলে,—"প্রুব তুমি, বরেণ্য ভূমান ।” কবি বলে,—“তুমি শোভাময় ।” গৃহী অামি, জীবযুদ্ধে ডাকি হে কাতরে,— ‘দয়াময়, হও হে সদয় ।” পিতৃহীন এখনো নিঙ্কিত, পিতা । এল সন্ধ্যা হ’য়ে, কত ক্ষণ ঘুমাইবে অণর ? করিবে না। সন্ধ্যাহিক ? গঙ্গেশদক ল’য়ে রাখিয়াছি শিয়রে তোমার । উঠ, দেখ চেয়ে, দেছি গবাক্ষ খুলিয়া, স্বৰ্য্য ওই বসেছেন পাটে ; মেঘ হ’তে মেঘে আলো পড়িছে ঢলিয়া, অন্ধকার জমিতেছে মাঠে ।