প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অক্ষয়কুমার বড়াল গ্রন্থাবলী.djvu/২৫০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অক্ষয়কুমার বড়াল-গ্রন্থাবলী শিরে ধরে ফণাচ্ছত্র কাল-ভুজঙ্গিনী, অবলেছে পী হ'খানি আগ্রহে শাৰ্দ্দল । নব-বরষায় চুর্ণ-জলদ-কুন্তল উড়িয়ে—ছড়িয়ে পড়ে শ্ৰীমুখ আবরি’ । চাতকী ডাকিছে দূরে, শিখিনী চঞ্চল, মেঘমন্দ্রে কৃষকের চিত্ত যায় ভরি’। বিস্তীর্ণ পদ্মার তুমি ভগ্ন উপকূলে বসে আছ মেঘস্তুপে অসিত-বরণা । নক্রকুল নত-তুগু পড়ি’ পদমূলে, তুলি শুগু করিযুথ করিছে বন্দন । সরে মেঘ, ফুটে ধীরে বদন-চন্দ্ৰমা । বিভোর চকোর উড়ে নয়ন-সোহাগে ; লুটে ভূমে শ্ৰীঅঙ্গের শু্যামল সুষমা, চরণ-অলক্তরাগ তড়াগে তড়াগে । মূৰ্ত্তিমতী হ’য়ে, সতী, এস ঘরে ঘরে, রাখ’ ক্ষুদ্র কপর্দকে রাঙ্গা পা হ’খানি । ধান্ত-শীর্ষ স্বর্ণ-বাপি লও রাঙ্গ করে— ভুলে’ যাই—সৰ্ব্ব দৈন্ত, সৰ্ব্ব দুঃখ গ্লানি । ছুটি নবোৎসাহে মাঠে ল’য়ে গাভীদলে, হিমসিক্ত তৃণভূমি, শুষ্ক পদ্মদল ; হরিদ্র ধান্তের ক্ষেত্রে, পীত রৌদ্রতলে বিছায়ে দিয়েছ তব সুবর্ণ-অঞ্চল । কুঙ্কটি-সায়াহ্নে হেরি—মৃগযুথ সাথে ছুটিছ নিবার-তীরে চকিত। চঞ্চল । মদির মধুক-বনে মান জ্যোৎস্না-রাতে ল’য়ে তুমি ঋক্ষশিশু ক্রীড়ায় বিহবল ৷