প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অনাথবন্ধু.pdf/১৭২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SՀ8 অনাথবন্ধু। [ अंथभ वर्ष, डांज़, ४७२७ । জয়পুররাজ্যের সীমা :-উত্তরে বিকানীর, লোহারু, ঝাজার এবং পাতিয়ালা ; দক্ষিণে গোয়ালিয়র, বুন্দি, টঙ্ক এবং উদয়পুর ; পূর্বদিকে আলোয়ার, ভরতপুর এবং কেরোলী ; পশ্চিমে কিষণগড়, যোধপুর এবং বিকানীর । জয়পুররাজ্যের প্রধান নগর জয়পুর । উহার লোকংখ্যা ১৩৭০৯৮। বৰ্ত্তমান সময়ে লেপ্টেনেণ্ট কৰ্ণেল এস এফ বেইলি জয়পুরের রেসিডেণ্ট বা পলিটিক্যাল অফিসার। মহারাজের প্রাইভেট সেক্রেটারী শ্ৰীসূত অবিনাশ 5 Cr মহারাজের বাঙ্গালীর প্রতিও যথেষ্ট অনুগ্রহ। স্বৰ্গীয় কান্তিচন্দ্ৰ মুখোপাধ্যায় ও স্বৰ্গীয় সংসারচন্দ্ৰ সেন বহুদিন জয়পুর-রাজসংসারে উচ্চ রাজপদে সমাসীন থাকিয়া বাঙ্গালীর গৌরববুদ্ধি করিয়াছেন। জয়পুরে যে শিল্প-বিদ্যালয় আছে, সেই বিদ্যালয়ে শ্ৰীযক্তি বাবু মতিলাল সেন প্রধান অধ্যক্ষ । বহুতর বাঙ্গালী এখনও কৰ্ম্মব্যাপদেশে জয়পুরে বসবাস করিতেছেন । মন্দিরাদিতেও গৌড়ীয় গোস্বামিগণ পুরোহিতের কার্শ্য করিতেছেন । ব্যবসাবাণিজ্যের জন্য জয়পুর চিরদিনই বিখ্যাত । হস্তিদন্তনিৰ্ম্মিত বিচিত্র কারুকাৰ্য্যময় শিল্পসম্ভার ও শ্বেতপ্ৰস্তরবিনিৰ্ম্মিত নানা প্রকার বাসনাদির জন্য জয়পুর বিশেষ বিখ্যাত। জয়পুররাজ্যের নানা স্থানে যে সকল শ্বেত প্ৰস্তরনিৰ্ম্মিত বাসন ও খেলনাদি নিৰ্ম্মিত হয়, উহাই কাশী প্ৰভৃতি অন্যান্য স্থানে অতি উচ্চাদরে বিক্রীত হইয়া থাকে। শিল্পকৌশলের জন্য জয়পুর সমস্ত ভারতবর্ষকেই যে পরাজিত করিয়াছে, তাহা জয়পুরের বাৰ্ত্তমান শিল্প দেখিলেই প্রতীত তইবে । বৈষ্ণব-সাধু শ্ৰী ৰূপ-সনাতন শ্ৰীবৃন্দাবনধামে শ্ৰীশ্ৰীগোবিন্দদেবের যে মন্দির স্থাপন করেন, ঐ মন্দির জয়পুরী শিল্পীর দ্বারা প্ৰস্তুত হইয়াছিল। সেরূপ স্থাপত্যশিল্পের অপূৰ্ব্বনিদর্শন আর কুত্ৰাপিও দেখা যায় না। এমন কি, অনেক যুরোপীয়ের বিশ্বাস, ঐ মন্দির যুরোপের জেসুইটসম্প্রদায়ের অনুকরণে নিৰ্ম্মিত হইয়াছিল। ঐ মন্দির অম্বরপতি মানসিংহ ৩৪ আকবরাব্দে নিৰ্ম্মাণ করেন। হিন্দুদ্বেষী মোগল ঔরঙ্গজেব ঐ মন্দির ভঙ্গ করিয়া তাহার উপর মসজিদ নির্মাণ করেন। মন্দিরের পুরোহিত গোবিন্দজীকে লইয়া অন্বরে পলায়ন করেন, সেই অবধি গোবিন্দদেব জয়পুরে রঙ্গিয়াছেন। ঔরঙ্গজেব এতটা হিন্দুদ্বোধী ছিলেন যে, দেব-মন্দিরের উপর মসজিদ নিৰ্ম্মিত চাইলে as =a_4===Nualasa- r mer tyr r সেই মসজিদে গিয়া নমাজ করিয়া আসেন। সনাতন গোস্বামীর কৃপালাভ করিয়া মুলতানবাসী কৃষ্ণদাস বা ভক্ত রামদাস বৃন্দাবনে মদনমোহন দেবের মন্দির প্রতিষ্ঠা করেন। ঐ মন্দির ও ঔরঙ্গজেব নষ্ট করিয়াছিলেন । মদনমোহনের মন্দির হইতেও ঔরঙ্গজেবের দৌরাত্ম্যে শ্ৰীমূৰ্ত্তি জয়পুরে স্থানান্তরিত হইয়াছিল, পরিশেষে জয়পুর মহারাজ। আপনার শ্যালক কেরোলীরাজ গোপালসিংহকে সেই মূৰ্ত্তি প্ৰদান করেন। ১৭৪০ খৃষ্টাব্দে রাজা গোপালসিংহ মদনমোহনের জন্য কেরোলীতে একটি মন্দির। নিৰ্ম্মাণ করেন। কচ্ছবাহ-ঠাকুরগণ চিরদিনই ভক্ত। ভারতের প্রায় প্ৰসিদ্ধ সকল তীর্থেই-কোথাও না কোথাও-ইহারা মন্দিরস্থাপন করিয়াছেন। পূর্বেই বলিয়াছি, আমাদের বর্তমান মাননীয় মহারাজ মাধো সিংহ . বাহাদুর ও সেই কচ্ছবাহ-ঠাকুরবংশীয় রাজপুত । বৰ্ত্তমান সময়েও বৃন্দাবনে জয়পুর মহারাজের প্ৰতিষ্ঠিত দেবমন্দির বিশেষ উল্লেখযোগ্য । বৰ্ত্তমান মহারাজ বাহাদুর যেরূপ উদারতার সহিত রাজ্যে শিক্ষাবিস্তারের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করিতেছেন এবং সুনিয়মে শাসন প্ৰতিষ্ঠাদ্বারা রাজ্যের শ্ৰীবৃদ্ধিসাধন করিয়াছেন, তাহাতে মাননীয় ভারত-গবৰ্ণমেণ্ট মঙ্গরাজের ভূয়সী প্ৰশংসা করিয়াছেন। পৃথিবীর ভার অপনোদনের জন্য ভগবান রামচন্দ্র জগতে অবতীর্ণ হন, তঁহারই বংশধররূপে সেই পবিত্র রক্ত আজি ও মহারাজাধিরাজ অস্বরাধিপতি জয়সিংহ জয়পুররাজ শুরু মাধো সিংহ বাহাদুরের ধমনীতে প্ৰবাহিত হইতেছে। যুরোপে যে কালসমরের সুচনা হইয়াছে, ভারতেশ্বর পঞ্চম জৰ্জ যে ধীরতা ও বিজ্ঞতার সঠিত দুৰ্দান্ত হনজাতিব বিরুদ্ধে ধৰ্ম্ম ও শান্তিস্থাপনের জন্য দাড়াইয়াছেন, আজি SDBDBKKBLSBD DBBBBB KBBDBBDBDS DDDDD SD SDD ক্ষমতানুযায়ী সমাট পঞ্চম জর্জের ধৰ্ম্মসংস্থাপনের সাহায্য করা উচিত এবং জয়পুরাধিপতি ভারতীয় হিন্দু প্ৰজাগণের মুখপাত্ৰস্বরূপ, তিনিই এই অধৰ্ম্মকর যুদ্ধে সাহায্যাদিদ্বারা হিন্দুজাতিরই মানরক্ষা করিয়াছেন। জয়পুররাজ্য ভারতীয় রাজ্যসমূহের মধ্যে সর্বপ্রকারে সমৃদ্ধিশালী ও গৌরবান্বিত। রাজ্যের মিউনিসিপালব্যবস্থা অতি সন্তোষজনক । মহারাজ বাহাদুর নিজে যেমন ধাৰ্ম্মিক, সমগ্ৰ প্ৰজাকুল ও সেইরূপ নিষ্ঠাবান হিন্দু। সৌজন্তে, সঙ্গদয়তায়, বিজ্ঞাতায় ও সর্বোপরি দানশীলতায় মহারাজ মাধো সিংহ বাহাদুর সমগ্ৰ ভারতের বরেণ্য ।