প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অনাথবন্ধু.pdf/৭৫৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কাগজের কারবার । [সম্পাদক । ] আজকাল এই যুদ্ধের জন্য বাণিজ্যের ষে গোল ঘাঁটিয়াছে, তাহাতে এদেশে কাগজের বড়ই অভাব হইয়াছে। যেরূপ ব্যাপার দাড়াইয়াছে, তাহাতে সাহিত্য-প্রচার প্রায় বন্ধ হইয়া আসিল । অনেকে লোকলজার ভয়ে এবং মানপন্সার বজায় রাখিবার জন্য এখনও সাময়িক পত্ৰ প্ৰচারিত করিতেছেন ; কিন্তু লেখায় ও কাগজে অনেক কাগজই আপনাদের হীনতার পরিচয় দিতেছে । আজকাল চিঠিীর কাগজ এক খানা প্ৰায় এক পয়সা বিকায়, কাজেই পুস্তক মুদ্রণের হার অনেক কমিয়া আসিয়াছে। কাগজের জন্য অনেক সংবাদপত্রের অবস্থা সঙ্কটস স্কুল হইয়া পড়িয়াছে। এই যুদ্ধ যদি এইরূপ ভাবে চলে, তাহা হইলে সাহিত্যপ্ৰচাৱ একেবারে বন্ধ না হউক বিশেষ সঙ্কীর্ণ হইয়া পড়িবে। এই কাগজের কাজ যুদ্ধে পুর্বে কিরূপ ছিল, এ দেশে। কত কাগজ জন্মিত, বিদেশ হইতে কত কাগজ আমদানি হইত, তাহার একটা হিসাব দেখা কৰ্ত্তব্য। সেই জন্য অদ্য আমরা কাগজ সম্বন্ধে তথ্য আলোচনায় প্ৰবৃত্ত হইলাম । ভারতে অনেকগুলি কাগজের কল আছে । বাঙ্গালায় টিটাগড়, কঁাকিনাড়া, ও রাণীগঞ্জে কাগজের কল সুপ্ৰসিদ্ধ। লক্ষ্মেী সহরে অপার ইণ্ডিয়া কুপার মিলস ও বোম্বাই পুণা সহরের রীয়া মিলস বিশেষ বিখ্যাত। এই সমস্ত কাগজের কল বিদেশীয় মূলধনে এবং বিদেশীয় তত্ত্বাবধানে পরিাচালিত। ইহার লভ্যাংশও বিদেশে চলিয়া যায়, ভারতবাসী এই সকল কলে কুলী মজুরের কাজ করে। কেহ গতর খাটায়, কেহ কলম পেশে । তবে কথা হইতেছে যে, এই কলের মালেকরা আমাদের সাম্রাজ্যের, এই বিশাল বৃটিশ नांवांखिाद्ध, भक्षाश्डि cयांक, यूडब्रां९ ईशब्रां अभिाग ब्र একেবারে পর নহেন। ইহা ভিন্ন বোম্বাইয়ে ও সুরাটে দুইটি ছোট ছোট কাগজের কল আছে, তাহাতে দেশী কাগজ প্ৰস্তুত হইয়া থাকে। ইহা ছাড়া আরও দুই একটা কল আছে, দুই একটা ৰন্ধও হইয়া গিয়াছে। বালিতে । একটা কাগজের কল ছিল, তাহা ইইতে বালির কাগজ नांभ श्वांछि । cल कल qथन थांब्र नांझे । ये बड़ বড় পাঁচটি কাগজের কলে নানাপ্রকার কাগজ প্ৰস্তুত হইয়া থাকে । বিদেশ হইতে আমদানি কাগজ অপেক্ষা সে কাগজ হীন নহে। সরকার ঐ সকল কাগজের কল হইতে অনেক কাগজ কিনিয়া থাকেন। সরকারের নিকট কাগজ বিক্রয় করিবার সুবিধা না পাইলে এই সব কাগজে কল বৈদেশিক প্রতিযোগিতায় । টিকিয়া থাকিতে পারিত না। যুদ্ধের পূর্বে বৈদেশিক প্ৰতিযোগিতার ফলে এ দেশে अननांक्षांब्रंद्र भरक्षा डांब्रउंौग्र क्लब्र कांबद्भ कॉऐडि cडन ड्त्रक्षिक शुभ्र व्याशे । অতি প্ৰাচীন কাল হইতে ভারতে সুলভ মূল্যের প্রচুর কাগজ প্ৰস্তুত হইয়া আসিতেছে । কিন্তু এখন বিদেশী আমদানী কাগজের সহিত প্ৰতিযোগিতায় আর তাহা তিষ্ঠিতে পারিতেছে না। এখন কল না হইলে কাগজের कांब्रदांद्र फ्रिकन दङ् कठिंना श्ब्रा धैांझाशेड्छ । ইংলণ্ড হইতেই এ দেশে অধিক কাগজ আমদানি হইয়া থাকে, যুদ্ধের পূর্বেও ইংলণ্ড হইতে সৰ্ব্বাপেক্ষা অধিক কাগজ আমদানি হইত। তৎপরে জাৰ্ম্মাণী, অষ্ট্রো-হাঙ্গেরী ও অন্যান্য দেশ হইতেও প্রচুর কাগজ এদেশে আসিত। এদেশে। কত কাগজ প্ৰস্তুত হইত এবং বিদেশ হইতে কত কাগজ এদেশে আমদানি হইত, তাহ ১৯০৮ খৃষ্টাব্দ হইতে ১৯১২ খৃষ্টাব্দ পৰ্য্যন্ত হিসাবে প্ৰদত্ত হইল। এই হিসাব পাউণ্ড নামক সুবৰ্ণ মুদ্রা অনুসারেই প্রদত্ত হইল। এক পাউণ্ড পািনর টাকা । পাঠক উহার পনর গুণ করিয়া লইলে উহা টাকার হিসাবে বুঝিতে পারিবেন। খৃষ্টাব্দ 丐打死5凶亨5 বিদেশ হইতে কাগজের মূল্য अभिगानि পাউণ্ড পাউণ্ড SC) ob7 eo6,レ>ア vrv, ose àR) oC) ৫২৭,৪৩৩ సిettyరిe So ¢8७,8७७ १७७,९२२ òd ) ) eరిని, ఆరిQ ፃፃ8,›Sኳ” > Q R ty o, do A Oct, a Ve o পাঠক দেখুন, এই যুদ্ধের পূর্বেই বিদেশী কাগজের আমদানি ক্রমশঃ বৃদ্ধি পাইতেছিল। স্বদেশী আন্দোলনের চরম সময় অর্থাৎ ১৯১০ খৃষ্টাব্দে ভারতীয় কালজাত কাগজের কাটুতি বেশী হইয়াছিল, কিন্তু তাহার পর হইতেই উহার কাটুতি কমিতে আরম্ভ হইয়াছে। কিন্তু বিদেশ হইতে আমদানি কাগজের মূল্য বিশেষ বৃদ্ধি পাইয়াছে। ১৯১২ খৃষ্টাব্দে বিদেশ হইতে ৯ লক্ষ ৫ হাজার ৫ শত ৬০ পাউণ্ড মূল্যের (উপরের তালিকা দেখুন) অর্থাৎ ১ কোটী ৩৫ লক্ষ ৮৩ হাজার ৪ শত টাকার কাগজ বিদেশ হইতে এদেশে पांभयांनी श्वांछ । " কোন দেশ হইতে কত পাউণ্ড মূল্যের কাগজ ও পেষ্টবোর্ড (পুস্তকাদির মলাট প্রভৃতি দিবার কঠিন কাগজ) কত छ्त्रांभांनी इब्रांप्छ्, बिरज्ञ ऊांशांद्र श्रे ब९ग:ब्रज्र श्लिांब দেওয়া হইল ।