পাতা:অনাথ আশ্রম - ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ.pdf/১০১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(ফাির্তী ও মরজিনার প্রবেশ ) আলি। কি গো ফািতমা বিবি, আজ কি রকম ব্যাপার হ’ল ? : ফািতমা। আজ পাঁচ মণ। भन्। अद्धि छू भ५ कांड, अब्र अक्ष भ1 কাঠের চোকলা-সেটা কি বলব বাছা ? ? আলি। সেটা কি আর বলতে আছে ? ব্যবসা করতে গেলে দু’ এক মণি এদিক ওদিক ফাতিমা । নাও নাও, তামাসা ক’র না । এই দাম নাও-নিয়ে বাজার করে আন। ও কি, তুমি আবার এখনি কুড়াল কঁধে করেছ যে ? আলি। ওটা কঁধের সঙ্গে কি রকম একটা আঠ লেগে জড়িয়ে গেছে। ওটার দিকে নজর ক’র না। ইস, আজ যে অনেক টাকা রোজগার করেছ দেখছি! এই সাড়ে সাত মণি আট মণ কাঠের দাম এক টাকা ছ’ পয়সা ? মর। তাই বা কৈ ! আমার এখনও দস্তুরি পাওনা। : ফাতিমা। বটে বটে, বাছা সেটা ভুলে গেছি। দাও গো, ওকে এই ছ’টা পয়সা । । মর। ( হিসেনের প্রতি ) এই ছ’টা পয়সা তোমাকে বক্‌সিস করলুম, বাবু সাহেব। এমন উপযুক্ত সন্তান তুমি, বাপ রোজগার । করে আনে, তুমি খাটিয়ে৫:খেতে জান না। কাঠগুলো নিয়ে বাজারে বেচিতে পার না। আমার মনিব, আমি বলতে পারি না। কিন্তু কেউ কাউকে ঠকিয়ে নেয়, তাও দেখতে পারি না শিৰ । - ফাতিমা। ঠকায়নি মা-ঠকায়নি। আমার জা-সে। যদি কিছু বেশীই নেয়, তাকে কি আর ঠকিয়ে নেওয়া বলে ? : - { আলি। তবে বলে নেয় না কেন ? ) ফাতিমা । বড়মানুষের মেয়ে, চাইতে যদি তার চক্ষুলজ্জাই হয়-তাহলে একটু আধটু ! গোলমাল করে নিতেও কি দোষ ? দাম যে | { দেয় এই যথেষ্ট । না দিলে কি করাতুম ? ও : ! যদি বড় মানুষের মেয়ে না হ’ত, তোমার t ই যদি রোজাকার করতে না পারত, তাহলে যে তোমাকে সমস্ত ভার নিতে হ’ত! আমি সব বুঝি-বুঝে চুপ করে থাকি-নাও এস। নেহাতই যাও ত একটু সরবত খেয়ে যাও । [ আলি ও ফাতিমার প্রস্থান। হুসেন । মৰ্বজিনা, আমাদের অবস্থা দেখে তোমার মনে কষ্ট হয়েছে ? ময়। একটু একটু হয়েছে বৈ কি ! । হুসেন । আচ্ছা, মরজিনা মরু। কি-বলতে বলতে থািমলে কেন ? छगन । ¢छे छू-डू-डू- মরু । বলতে কি সরাম হচ্ছে ? : হুসেন। না, সারম কেন—সরম কেন ? এই তুমি কি আমাদের ভা-ভা-ভা- মর। ভালবাসি কি না জিজ্ঞাসা কচ্ছ ? হুসেন। হি হি হি-হঁ, মরজিনা। : মধু । একটু একটু বাসি বৈকি। হুসেন । তাই জিজ্ঞেস করছিলেম। তা, । মরজিনা ! মরু ; কি ? হুসেন । তা-তা-তা-মন্বজিনা ! মৰু। আবার স্থা করে দাড়িয়ে রইলে কেন? হুসেন। দাড়াইনি, দাড়াইনি-এই চলে যাচ্ছি। তা, মরজিনা' ! / ! মরু। কি ? ? . . . . . cm 表一豪一silーd aーリ i একটু সন্ধুবৎ খাবে ? :