পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/১২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“অন্ধকূপ-হত্যা”-রহস্য হলওয়েল, বারডেট, কোর্ট ও ওয়ালকটই প্রধান। জুনিয়র গ্রে, মিল প্রভৃতি ইংরাজগণ মুক্তি পাইয়া ৯ দিন যাবৎ কলিকাতাতেই ছিলেন। নবাব উপরােক্ত ব্যক্তিগণকে বন্দী করিয়া মুর্শিদাবাদ চলিয়া যান এবং সেখানে তাহাদিগকে মুক্তি দেন। ব্যাপারটা এইরূপ ; কিন্তু হলওয়েলের চক্রান্তে এবং গ্রে ও মিলস্ প্রভৃতি কর্মচারিগণের ‘প্রােপাগাণ্ডার’ ফলে ঘটনাটি এক বিকৃত আকার ধারণ করে। গল্পগুজবে ও উপাখ্যানে ঘটনাটী সম্বন্ধে অনেকেই অনেক কিছু বলিয়া গিয়াছেন এবং হলওয়েল এ সম্বন্ধে কিছু না লিখিলেও কালক্রমে সমসাময়িক অন্যান্য লেখকের সাহায্যে ইতিহাসে ইহা স্থান পাইলেও পাইতে পারিত। এই জন্য ওয়েল এবং অন্যান্য যে সব লেখক এই ঘটনা সম্বন্ধে যাহা কিছু লিখিয়া গিয়াছেন, প্রয়োজন মত তাহাদের বর্ণনাগুলি যথাস্থানে উদ্ধৃত করা হইবে। পাঠক সে সমস্ত তুলনা করিয়া দেখিলে সহজেই বুঝিতে পারিবেন—ঘটনটীর মূলে কতটা সত্য নিহিত আছে। | এই ঘটনা সম্বন্ধে বিভিন্ন ঐতিহাসিক বা লেখকগণ যে সমস্ত বিবরণ লিখিয়া গিয়াছেন নিম্নে তাহাদের একটা সংক্ষিপ্ত আভাস দেওয়া গেল। অন্য অধ্যায়ে সেই সমস্ত বিবরণের অংশ বিশেষ উদ্ধৃত হইবে। ১। মুসলিম রেকর্ড। ২। হিন্দু রেকর্ড। ৩। ব্রিটীশ রেকর্ড। ৪। ফরসী রেকর্ড। ৫। ডাচ রেকর্ড। ৬। জার্মান রেকর্ড। প্রথমেই আমরা দেখিব—মুসলমান ও হিন্দু রেকর্ড এঘটনা সম্বন্ধে কি বলে।