পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/১৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


। । “অন্ধকূপ-হত্যা”-রহস্য থাকিলেও, প্রস্তুত হইতে লাগিলেন।•••••••••সিরাজউদ্দৌল্লা বহু সৈন্য সমভিব্যাহারে তাহাদের কুঠীগুলি দখল করিয়া বসিলেন। কলিকাতার ইংরাজ শাসনকর্তা ড্রেক উপায়ান্তর না দেখিয়া তাহার সহকর্মিগণকে কিছু বলিয়াই কলিকাতা ছাড়িয়া পলায়নপূর্বক নৌকায় আশ্রয় গ্রহণ করিলেন এবং কতক বন্ধুবান্ধবসহ পলায়ন করিলেন। যাহারা দুর্গের মধ্যে রহিলেন, তাহাদের মধ্যে কেহ কেহ বীরের ন্যায় যুদ্ধ করিয়া প্রাণত্যাগ। করিলেন, যাহারা বাঁচিলেন, তারা বন্দী হইলেন। নগর দখলের পর সৈন্যগণ সর্বত্রই লুটপাট আরম্ভ করিল। কোম্পানীর কর্মচারীর এবং হিন্দু ও আর্মেনিয়ান বণিকগণের বাসগৃহসকল লুণ্ঠিত হইল। এই ঘটনা ১১৬৯ হিজরীতে, ২২শে রমজান তারিখে সংঘটিত হয়। কাসিমবাজার কুঠীর অধ্যক্ষ মিঃ ওয়াটস্ ( Mr. Watts ) এবং কলিকাতার কয়েকজন ইংরাজ, নবাবের হন্তে বন্দী হইলেন।•••এই সময়ে কয়েকজন ইংরাজ মহিলা। সেনাপতি মীরজাফর খাঁর অনুচর মির্জা ওমরবেগের হস্তে পতিত হয়। তিনি বিশেষ ভদ্রতা সহকারে সেই মহিলাগণকে নৌকাযােগে তাহাদের স্বামীর নিকট পৌছাইয়া দেন ••••••••” (১) | ২ (খ) মােহাম্মদ আলী খাঁ বনে—“..•••••••রমজান মাসে তিনি (নবাব) কলিকাতা অভিমুখে রওয়ানা হইলেন এবং কলিকাতায় পৌঁহুছিয়াই উহার বহির্দেশে তঁাবু গাড়িয়া বসিলেন। ইংরাজেরা অল্পসংখ্যক লোক ছিলেন এবং যুদ্ধের অস্ত্রশস্ত্রও অল্প ছিল ; সে কারণ। সম্মুখযুদ্ধে তাঁহার সহিত পারিয়া উঠিলেন ন। দুর্গ পরিখা দ্বারা সুরক্ষিত ও সুদৃঢ় করিয়া তাহারা উহার মধ্যে আশ্রয় গ্রহণ করিলেন। সিরাজউদ্দৌল্লার প্রচুর পরিমাণে গােল বারুদ ও অসংখ্য সৈন্য ছিল•••••••••এবং এক নিমেষেই ইংরাজগণকে পরাজিত করিলেন। মিঃ ড্রেক উপায়ান্তর (১) siyarul-Mutakkhirin, Eng. Trans, Vol. ll p. 189-19 । । । |