পাতা:অভেদী.pdf/৫৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ 8७ ] ১৪ –আম্বেষণচন্দ্রের নানা প্রকার উপাসন। শ্রবণ; আত্ম বিচার ও মৃত পিতার বাণী শ্রবণ । রৰিবারে গির্জা খুলিল-পারি পুপিটে গে'ম পরিয়া বাইবেল লইয়া উপাসনা করিতে আরম্ভ করিলেন । মর মারী একত্র বসিয়া ভজনা করিতেছেন—সকলেরই ছাতে বাইবেল, সকলই ভক্তি ভাবে বসিয়াছেন। উপাসমার যে প্রণালী আছে তাহ সাঙ্গ হইলে, পারি এক সৰ্বমন অর্থাৎ বক্তৃত। করিলেন ও অবশেষে সতর খ্ৰীষ্টিয়াম ধৰ্ম্ম বিস্তীর্ণ হওন জন্য প্রার্থনা করিলেন। উপাসনা যাহা হইল তাছাতেই फ्रट्s|रु कांव्न झमा मक८लङ्ग श्रॉब्लॉग्न पञांङ्गांभ श्रदsोंrझे झझेश থাকিবে । পরদিবস প্রাচীম ব্রাহ্ম সমাজে উপাসন হইল। আচার্য ও উপাচার্ঘ্যের প্রণালীপূৰ্ব্বক ভজনা করিলেন ও আচাৰ্য্য প্রার্থনা করিলেন যে সত্য ব্রাহ্ম ধৰ্ম্ম দেশে, এদেশে প্রচারিত ও গৃহীত হউক। সকল উপাসক ভক্তিভাৰে কিছু কাল যাপন করিলেন। পরদিবস উন্নত ব্রাহ্ম মন্দিরে ঐ প্রকার উপাসনা ও প্রার্থন হইল ও তার পর দিবস মসজিদেও ঐ রূপ উপাসন ও ७धtर्थमां हरेल । অন্বেষণচন্দ্র সকল উপাসনা ও প্রার্থনা শুলিয়া ভাবিতে লাগিলেম যে কোন সম্প্রদায়ের প্রার্থনা সিদ্ধ হইবে, সকলেই আপন মত ও বিশ্বাস অনুসারে উপাসনা ও প্রার্থনা করে কিন্তু মত বিশ্বাসের সত্যা সত্য কি রূপে ধার্য্য ছইবে ? মত