পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/২৪৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অমরনাথ । סיכיא छङ्गतः । इं । নীল । ও কি ? তুমি যে নেমকমহলের পঞ্জ,ড়ির মুহুরির মত পীচ মণ ওজন হোচ্ছে, আর একটি কোরে ঢেরা আঁচড় দিয়ে যাচ্ছে, এর মানে কি ? আর আর দিন তুমি এ সময় বাগানে এলে আনন্দে উন্মত্ত হয়ে বেলার মালঞ্চে একবার দৌড়ে যাও, গোলাবের মালঞ্চে একবার দৌড়ে যাও। কখনও বা আমার কবরীর উপরে একটি গোলাব ফুল গুজে দিয়ে বল যে আহা ! কি অপূৰ্ব্ব শোভাই হয়েছে, যেন উদয় গিরির উপরে তরুণ ভানুর উদয় হয়েছে। কখনও বা মালতী মঞ্চের তলে গিয়ে বল যে আহ। সই, এ স্থানটি কি রমণীয়! উপরে আর চারি পাশে মালতী লতাতে ঢেকে একটি মালতী ফুলময় কুটীরের মত কোরেছে, তাতে মলয়া বাতাস বোচ্ছে, গন্ধে আমোদিত, এখানে এলেই অমনি শরীব মন উভয়ই পুলকিত হয় । বোধ হয় যেন এইটিই বসন্তের বাসাঘর। কখনও বা বল যে সই এই যে জগদীশ্বর ফুলের স্বটি কোরেছেন, এ যেন স্বভাবের অলঙ্কার। যেমন মানুষের কর্মের মধ্যে গীত বাদ্য, রচনfর মধ্যে কবিতা, মনের ভাবের মধ্যে প্রীতি, তেমনি বাহ স্বভাবের মধ্যে ফুল । এ কেবল সুখের জন্যে। তা আজ যে তোমার উদাস উদাস—উডু উডু ভাব, এর কারণ কি ? ও কি ? একে বারে ঐ বেল ফুলের ঝড়ের কাছে বোসে পোড়লে যে ? চারু। স্থ্য স্থা। একটু বসি এই খেনে, দাড়িয়ে দাড়িয়ে পাট ধোরে গেছে। হেদে এই ফুল গুলর বেশ গন্ধ। তুমি ততখন একটু ব্যাড়াও গে, আমি এলেম বোলে । নীল । ওমা ! হেদে বলে আমি বসি তুমি বেড়াও ! এমন কথাও তো কখনও শুনিনি। আমি যা জিজ্ঞাসা কোচ্ছি তার উত্তর নেই। (পাশ্বে উপবেশন) দেখি দেখি ? মুখখানি একবার দেখি ?