পাতা:অশনি সংকেত - বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৭৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


GS उप्र-नि-नर्कङ --না নিলে অনাহারে মরতে হবে । যা ভালো বোঝে। তাই করে । পরদিন গঙ্গাচরণ শাঁখাজোড়া গ্রামের সব স্যাকবার দোকানে বিক্লিক করলে । সব* স্যাকরা বললে-এ জিনিস বিক্লিক করবেন কেন ? --দরকার অাছে । কিন্তু চাল পাওয়ার যে এত বিপােল বাধা তা গঙ্গাচরণ জানতো না। শঙ্করপরের নিবারণ ঘোষের বাড়ী চালের সন্ধান একজন দিয়েছিল । খাব ভোরে পরদিন উঠে। সেখানে পৌছে দেখলে দশজন লোক সেখানে ধামা নিয়ে বসে । বাড়ীর মালিক তখনো ওঠে নি। নিবারণ দোর খালে বাইরে আসতেই সবাই মিলে তাকে ঘিরে ধরলে । সে বললে-আমার চাল নেই গঙ্গাচরণ বললে-সে আমি জানি । তবও তোমার মাখে শনাবো বলে এসেছিলাম গঙ্গাচরণ সেখানেই বসে পড়লো। চাল না নিয়ে ফিরবে কেমন করে। বাড়ীর সকলেই আজ দশদিন থেকে ভাত খায় নি। ছেলেদের মখের দিকে তাকালে কস্ট হয় । অন্য কয়েকজন লোক যারা এসেছিল, তারা একে একে সবাই ফিরে গেল । নিবারণ ঘোষা৷৷ বাইরের বাড়ী আর ভেতর বাড়ীর মধ্যেকার দরজা বন্ধ করে দিয়েছে। কতক্ষণ পরে নিবারণ ঘোষ আবার বাইরে এল । গঙ্গাচরণকে বসে থাকতে দেখে বললে -বাবাঠাকুর কি মনে করে বসে ? চাল ? সে দিতে পারবো না। ঘরে চাল আছে, সে তোমার কাছে অস্বীকার করতে যাচি নে-শেষে কি নরকে পচে মরবো ? কিন্তু সে চাল বিক্লিক করালি। এরপর বাচ-কাচ না খেয়ে মরবে। যে ! =<\ठ प्राद्ध उभाgछ ? 一亦qq1 一危夺? --না ঠাকুরমশাই, মিথ্যে বলবো না। আর কিছু বেশী আছে। কিন্তু সে হাতছাড়া করলি বাড়ীসদ্ধ না খেয়ে মরবো। ট্যাক নিয়ে কি ধয়ে খাবো ? ও জিনিস পয়সা দিলি (भद की । গঙ্গাচরণ উঠবার উদ্যোগ করছে দেখে নিবারণ হাত জোড় করে বললে--একটা কথা। বলি বাবাঠাকুর। ব্রাহ্মণ মানযে, এত দর। এয়েচেন চলির চেণ্টায়। আমি চলি দিচি, আপনি আমার বাড়ীতে দটাে রান্না করে খান । রসই চড়িয়ে দিন গোয়ালঘরে। মাছ পাকুর থেকে ধরিয়ে দিচি, মাছের ঝোল ভাত আর গরর দািধ আছে ঘরে । এক পয়সা দিতি হবে না। আপনার । গঙ্গাচরণ বললে-না, তা কি করে হয় ? বাড়ীতে কেউ খায় নি। আজ দশদিন । ছেলেপিলে রয়েছে, তা হয় না। তুমি আমাকে রান্নার জন্যে তো চাল দিতেই, আর দটাে BB BDBB BD DBDD BB BB BB S BD DD BD DD DDBS DDBS DDD D शक्ष ७ ।। নিবারণ কিছুতেই রাজী হোল না। তার ওপর রাগ করা যায় না, প্রতি কথাতেই সে হাত জোড় করে, এখানে বসে খাওয়ার নিমন্ত্ৰণ তো করে রেখেচেই । গঙ্গাচরণ চলে আসছে, নিবারণ এসে পথের ওপরে আবার তাকে হাত জোড় করে রক্ষা করে খাওয়ার, অনরোধ জানালে ।