পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/১১৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Yan Van: ] সূত্ৰস্থান । । ৬১ দোষ ধাতু ও মল সমূহের বৃদ্ধি ও ক্ষয় লক্ষণ বিস্তৃত ভাবে বলিয়া এক্ষণে তাহা সংক্ষেপে বলা যাইতেছে-দোষ ধাতু ও মল ইহাদের মধ্যে যে পদার্থ যে গুণযুক্ত, শরীরে যদি তাহার বিপরীত গুণের ক্ষয় দৃষ্ট হয় তাহা হইলে সেই পদার্থের বৃদ্ধি এবং যদি বিপরীত গুণের বৃদ্ধি দেখা যায়, তাহা হইলে সেই পদার্থের ক্ষয় হইয়াছে জানিতে হইবে। যেমন-বায়ুর গুণ বৃক্ষ গীত লঘু প্রভৃতি ; ইহার বিপরীত গুণ স্নিগ্ধ উষ্ণ ও গুরুত্বাদি। শরীরে যদি রূক্ষ্যাদি গুণের বিপরীত মিথ্যাদি গুণের ক্ষয় হয়, তাহা হইলুে বুঝিবে বায়ুর বৃদ্ধি হইয়াছে। আর যদি স্নিগ্ধাদি গুণের বৃদ্ধি হয়, তাহা হইলে বুঝিবে বায়ুর ক্ষয় হইয়াছে। এই প্রকারে বিবেচনা পূর্বক ধাতু ও মল সমূহের বৃদ্ধি বা ক্ষয় নির্ণয় করিবে। মলের বৃদ্ধি ক্ষয় জানিবার আরও একটী উপায় আছে-পুৱীষ্যাদি মলের বিবদ্ধতা দ্বারা তাহদের বৃদ্ধি এবং তাহদের অতুি প্ৰবৰ্ত্তন দ্বারা ক্ষয় অবগত হইবে । ২৫ মল পদার্থের ক্ষয় ও বৃদ্ধি উভয়ই পীড়াকুর হইলেও তন্মধ্যে,মলবৃদ্ধি অপেক্ষা মলক্ষয় অধিক পীড়াকার। কারণ মল দ্বারা দেহ রক্ষিত হইয়া থাকে, মলের বৃদ্ধিও প্রায়ই ঘটে ; সুতরাং মল বৃদ্ধি অভ্যন্ত, সেইজন্য ইহা তেমন পীড়াকার হয় না। আর মলক্ষয় সৰ্ব্বদা ঘটে না, সুতরাং ইহা অনভ্যস্ত, অনুভ্যন্ত বিষয় অধিক পীড়াকার হইয়া থাকে ॥ ২৬ দোষাদির আশ্রয়াশ্রয়িভােব প্ৰদৰ্শিত হইতেছে- বাতাদির মধ্যে বায়ু অস্থিতে আশ্রিত, পিত্ত স্বেদ ও রক্তে স্থিত এবং কফ, রস মাংস মেদ মজ্জা শুক্র মুত্র ও পুৱীযাদিতে অবস্থিত। অর্থাৎ বায়ু আশ্রয়ী, অস্থি আশ্ৰয়। পিত্ত আশ্রয়ী স্বেদ ও রক্ত আশ্রয় এবং শ্লেষ্মার আশ্রয় রসাদি পদার্থ, রসাদির আশ্রয়ী শ্লেষ্মা। এই প্রকার পরস্পর আশ্রয়াশ্রয়ভাব থাকায় যে ”ঔষধাদি একের ( আশ্রয়ের বা আশ্ররির ) বৰ্দ্ধকবা ক্ষরিকর তাহা ত্মন্যেরাও (তদ্ৰাশ্ৰয় বা তদাশ্ররিরও) বৰ্দ্ধক বা ক্ষয়কর হইয়া থাকে। কিন্তু আশ্রয়াণ্ডুরিভাবাপন্ন হইলেও অস্থি এবং বায়ুর পক্ষে এ নিয়ম নহে। কারণ স্নিগ্ধ মধুৱাদি বৃংহণ দ্রব্য দ্বারা অস্থির বৃদ্ধি হয়, কিন্তু তদদ্বারা বায়ুর হ্রাস হইরা থাকে। আর রুক্ষতিক্তাদি অপতৰ্পণ দ্বারা বায়ুর বৃদ্ধি হয়, কিন্তু তাহাতে অস্থির ক্ষয় হুইয়া থাকে। অতএব যাহা অস্থির বদ্ধক বা ক্ষয়কর, তাহা তদাশ্রয়ী বায়ুর বদ্ধক বা ক্ষয়কর হয় না। প্রায়ই স্নিগ্ধমধুরাদি সন্তৰ্পণ দ্বারা দোষাদির বৃদ্ধি হয়, তাহা শ্লেষ্মানুগামী, আর তদবিপরীত রুক্ষতিক্তাদি-অপতৰ্পর্শ দ্বারা দোষাদির ক্ষয় হয়, তাহা বাতানুগামী। অতএব দোষদাতুসম্বন্ধি বৃদ্ধি ও ক্ষসিন্থত রোগ সমূহের যথাক্রমে লঙ্ঘন ও বৃংযুণ ঔষধ দ্বারা সত্বর প্রতিকার করিবে। অর্থাৎ দোষাদির বৃদ্ধিজনিত রোগের লঙ্ঘন দ্বারা এবং ক্ষয়জনিত রোগের বৃংহণ দ্বারা শীঘ্ৰ চিকিৎসা করিবে ( কারণ বিলম্বে দুশ্চিকিৎস্ত হইব্রাউঠে )। কিন্তু বায়ুর বৃদ্ধি বাক্ষর জনিত রোগের চিকিৎস। ইহার বিপরীত ক্ৰমে করিতে হইবে অর্থাৎ বায়ুর বৃদ্ধি জনিত রোগের সন্তৰ্প দ্বারা এবং বায়ুর ক্ষয় জনিত রোগের অপতৰ্পণ দ্বারা চিকিৎসা কৰ্ত্তব্য৷৷ ২৭-৩০ ... O পূর্বে উক্ত হইয়াছে যে প্রবৃদ্ধ রস ও শ্লেষ্মা উভয়ের गर्धन একই প্রকার ; সুতরাং উভয়ের চিকিৎসাও যে একই প্ৰকার তাহাও প্ৰকারান্তরে বলা হইয়াছে, সৈই জন্য এখানে পুনরায় তাহ বলা হইল না। এক্ষণে রক্তাদি ধাতুর বৃদ্ধি ও ক্ষয় জনিত রোগের চিকিৎসা বিশেষ ভাবে বলা ঘাইতেছে। রক্তবৃদ্ধিজনিত রোগের রক্তস্রাব ও বিরোচন দ্বারা ; মাংসাবৃদ্ধিজনিত রোগের শত্র ক্ষার ও অগ্নি কৰ্ম্ম দ্বারা, মেন্দোবৃদ্ধিজনিত রোগের স্থৌল্য চিকিৎসা (দ্বিবিধোপাক্রমণীয়াক্ত )