পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/১১৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


VNU) ♥ነፍቓኮጓ'üሻቑ | ! ०२भ अ३ সমূহ নিজ নিজ লক্ষণ প্ৰকাশ করে এবং স্বাস্থ্যহানি ও রোগোৎপত্তি করিয়া থাকে। (প্ৰকুপিত দোষ সকলের লক্ষণ পূর্বে দোষাদিবিজ্ঞানীরাধারে বলা হইয়াছে এবং বাতব্যাধি নিদানে বলা যাইবে। দোষ সকল যখন সমত্বাবস্থায় স্বস্থানে অবস্থিতি করে এবং কোনরূপ · রোগোৎপত্তি করে নূ","তখন তাঁহাকে প্রশম কুহে ) ॥ ২২ গ্ৰীষ্মাদি ঋতুত্ররে যথাক্রমে বায়ুর চয় প্রকোপ ও প্ৰণাম হইয়া থাকে অর্থাৎ গ্ৰীষ্ম ঋতুতে বায়ুর চয়, বৰ্ষাঋতুতে পায়ুর প্রকোপ এবং শরৎকালে বায়ুর প্রশম হইয়া থাকে। এইরূপ বর্ষ শরৎ ও হেমন্ত ঋতুতে যথাক্রমে পিত্তের চয় প্রকোপ ও প্রশম এবং শিশির বসন্ত ও গ্ৰীষ্ম ঋতুতে কফের চয় প্রকোপ ও প্ৰশম হইয়া থাকে ॥ ২৩ লঘু রুক্ষ গুণান্বিত গ্ৰীষ্মকালে লঘু ও রুক্ষ ওষধি (যবশালিগোধূমাদি) সেবনহেতু লঘুকৃক্ষস্বভাব বায়ু আদান কাল জন্য লঘুকুক্ষগুণযুক্ত দেহে সঞ্চিত হইয়া থাকে ; কালের উষ্ণতাবশতঃ প্ৰকুপিত হয় না । ( বায়ু শীতগুণযুক্ত, উষ্ণগুণ তাহার বিরোপী, বিরুদ্ধগুণ সংযোগে প্রকোপ অসম্ভব। তবে লঘু রূক্ষাদি তুল্য গুণ দ্বারা কেবলমাত্র বায়ুর সঞ্চয় হইয়া থাকে) ॥ ২৪ বর্ষাকালে জল ও ওষধি সকল অশ্লপাক হয়, পিত্তও আমরসান্বিত ; সেইজন্য তুল্যগুণ যোগে পিত্তের সঞ্চয় হয় মাত্র, বর্ষাকালের শৈত্যবশতঃ উষ্ণগুণযুক্ত পিত্তের প্রকোপ হইতে 9tG3 oR II qGt এইরূপ স্নিগ্ধশীতস্বভাব শিশিরকালে স্নিগ্ধ ও শীতগুণযুক্ত ওষধি, ও জল সেবাহেতু তুল্যগুণান্বিত কফ স্নিগ্ধ ও শীতল দেহে সঞ্চিত হইয়া থাকে। কিন্তু এ সময়ে কফ ঘনীভূত থাকায় প্ৰকুপিত হইতে পারে না। ॥ ২৬ Ag কালম্বভাব্যবশতঃ পূর্বোক্ত প্রকারে বাতাদি দোষের চেয়প্ৰকাপাদি হইয়া থাকে । কিন্তু অন্নপান্নাদি আহার সামর্থে কাল অপেক্ষা না করিয়া দোষ সমূহের সন্তই সঞ্চয় প্রকোপাদি হয়। আবার আহারাদি বশে দোষ সকলের চয়াদিকালেও চয় প্রকোপ প্রশম্যাদি হয় না।” তজ্জন্য কাল অপেক্ষা আহারাদিরই প্ৰাধান্য দৃষ্ট হইয়া থাকে ৷৷ ২৭ যেমন 'গিরিনদী প্রভৃতির জলবেগ সমবিষম সমস্ত স্থানকে অকস্মাৎ প্লাবিত করে এবং অল্পে অল্পে নিবৃত্ত হয়, সেইরূপ কুপিত দোষ সকল সঁহসা আপাদমস্তক সমস্ত দেহকে ব্যাপ্ত করে এবং ক্রমশঃ মন্দ মন্দ ভাবে কমিয়া থাকে৷ ২৮ ৷৷ . . কুপিত মল সমূহ (বায়ু পিত্ত কফ) অনেক প্রকার ও অসংখ্য রোগ উৎপাদনা করিয়া শরীরকে সন্তাপিত করিয়া থাকে ; সেই অসংখ্য রোগের প্রত্যেকের নিদান , লক্ষণ ও চিকিৎসা স্বতন্ত্র ভাবে নির্দেশ করা অসাধা ; অতএব সাধারণ ভাবে কথিত হইতেছে৷ ২৯, ' ' বাতদি দোষ সমূহই জর “অতীসার প্রভৃতি সমস্ত রোগের উৎপত্তির একমাত্র কারণ। দৃষ্টান্ত যখ-পক্ষী যেমন সমস্ত দিন সকল দিকে পরিভ্রমণ করিয়াও নিজের ছায়াকে অতিক্রম করিতে পারে না, অথবা এই সমস্ত স্থাবর জঙ্গমাদি নানা প্রকার ভূতবিকার সমূহ যেমন সত্ব রজঃ ও তমঃ এই গুণত্রয়কে অতিবৰ্ত্তন করে না, সেইরূপ স্বীয় ধাতুবৈষম্যনিমিত্ত রোগ সমূহও দোষত্রয়কে অতিক্রম করিতে পারে না ‘অর্থাৎ দোষসম্বন্ধ ভিন্ন কখনই রোগের উৎপাত্ত হয় না। এই সকল দোষের প্রকোপ বিষয়ে তিনটী কাৱণ ; যথা-অসাত্ম্য ইস্ক্রিয়ার্থ সংযোগ