পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/১৩৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


V অষ্টাঙ্গাহৃদয়। [ »७े त्रः পরে যদি জীর্ণাজীর্ণ শঙ্কা উপস্থিত হয়, তাহা হইলে পুনরায় উষ্ণজল পান করিবে। তাহাতে পীতস্নেহ ব্যক্তির উদগারের শুদ্ধি, শরীরের লঘুতা এবং আহারে রুচি হইয়া থাকে ৷৷ ২৫২৬ স্নেহপানের পূর্বদিন, মেকুপান দিবসে এবং স্নেহপান করিয়া, মুদগম্বুষাদিযুক্ত উষ্ণ অন্ন - বা কেবল দ্রবোঞ্চ, পেয়াদি এবং অনভিযান্দি ( যাহা কাফকার নহে ), ঈষৎ স্নিগ্ধ ও অসঙ্কর ( যাহা সংযোগবিরুদ্ধ , বা অপথ্যমিশ্রিত নহে ) আঁয় অল্প মাত্রায় ভোজন করাইবে। যতদিন স্নেহ পান করিবে০ ততদিন এবং স্নেহপানের পর আরও ততদিন উষ্ণ জল ব্যবহার করিবে, ব্ৰহ্মচারী (স্ত্রীসঙ্গবৰ্জিত) হইবে, রাত্ৰিতে নিদ্ৰা যাইবে, মলমূত্ৰাদির বেগধারণ করিবে না এবং ব্যায়াম, ক্ৰোধ, শোক, হিম, সুৰ্য্য ও অগ্নির তাপ, প্ৰবল বায়ু, যানে গমন, পথশ্ৰম, অধিক বাক্যকথন, দীর্ঘকাল উপবেশন, অতিনীচ বা অতি উচ্চ বালিসে মস্তক স্থাপন, দিবানিদ্রা, ধূম ও ধুলি বর্জন করিমে। বমন বিরোচনাদি সমস্ত কাৰ্য্যে এবং ব্যাধিনীণ ব্যক্তিদের পক্ষেও প্রায়, এই নিয়ম। কিন্তু শমন স্নেহপানের পর বিরিক্তবৎ বিধি অবলম্বনীয় । ( অর্থাৎ বিরোচনান্তে যেমন পেয়াদিক্রম পালন করিতে হয়, সেইরূপ বিধান কৰ্ত্তব্য ) ৷ ২৭-৩১ 瞬 মৃদুকোষ্ঠ ব্যক্তি তিন দিন এবং ক্রুরকোষ্ঠ ব্যক্তি সাত দিন সাধারণতঃ আচ্ছাস্নেহ পান করিবে । মধ্য কোষ্ঠ ব্যক্তির পক্ষে ছয় দিন অচ্ছ-স্নেহ পান ব্যবস্থা। যদি তিন দিন স্নেহপানের পর সম্যক স্নিগ্ধ লক্ষণ প্রকাশ না পায়ু, তাহা হইলে চারিদিন বা পাঁচদিন পৰ্যন্ত স্নেহপান করবে। ফলতঃ যতদিন স্নিগ্ধলক্ষণ সম্যক উপস্থিত না হয়, তত দিন স্নেহ পান করিতে হইবে। সপ্তাহ পৰ্যন্তই যে স্নেহপানের নিয়ম তাহা নহে, সপ্তাহের পরও মেহঁপান করা যায় । তবে সপ্তাহের পর স্নেহপান করিতে হইলে এক দিন বিশ্রাম করিয়া পুনরায় মোক পান করিতে হয়। স্নিগ্ধলক্ষণ প্রকাশের পরও স্নেহ পান করিলে তাহা সাত্ম্যীভূত (আভ্যন্ত) হয়; সুতরাং তা হাতে কোন ফল দৰ্শে না অর্থাৎ ঐ স্নেহ, মলাদি নিঃসরণ করিতে পারে না। ॥ ৩২ সম্যকস্নিগ্ধাদির লক্ষণ। সম্যক মিন্ধ হইলে বায়ুর অনুলোম, অগ্নির দীপ্তি, মলের স্নিগ্ধতা ও শৈথিল্য,স্নেহােম্বেগ ও ক্লাস্তি এই সকল লক্ষণ প্ৰকাশ পায়। কিন্তু রুক্ষ হইলে ইহার বিপরীত লক্ষণ সকল উপস্থিত হইয়া থাকে। অতিৰ্নিগ্ধ হইলে শরীর পাণ্ডুবৰ্ণ হয় এবং নাসিক মুখ ও গুহ স্বারা দিয়া স্রাব নির্গত হইয়া থাকে ৷৷ ৩৩ o ' ' অনুচিত মাত্রায় ও, অকালে (গ্ৰীষ্মাদি নিষিদ্ধ কালে) স্নেহ পান করিলে, অহিত স্নেহ ( যে স্নেহ যাহার পক্ষে নিষিদ্ধ) এবং অনুপযুক্ত আহার ও বিহারের (পুর্বোক্ত) সহিত স্নেহ পান করিলে শোখ, অৰ্শ, তন্ত্ৰা, স্তব্ধতা, সংজ্ঞাহীনতা,”কণ্ডু, কুষ্ঠ, জ্বর, বমনষেগ, শূল, আনাহ ও ভ্ৰমাদি উপদ্রব জন্মে৷ ৩৪ ৷৷ V • R মেহব্যাপচ্চিকিৎসা। 'স্নেহবিধিভ্রংশ হইলে ক্ষুধারোধ, তৃষ্ণানিগ্ৰহ, বমন, স্বেদ, রুক্ষ পান, রুক্ষ অল্প ও রুক্ষ ঔষধ, তবে, "অরিষ্ট, খেল (ব্যঞ্জন বিশেষ), উন্দাল (শালিধান্ত বিশেষ), যব, শুiামাধান্ত, কোদোধান্ত, পিপুল, ত্রিফল, মধু, হরীতকী, গোমুত্র ও গুগগুলু এবং দোষানুসারে প্ৰতি রোগের যে ষে ‘ঔষধ তত্তদধ্যায়ে নির্দিষ্ট হইয়াছে, সেই সমস্ত ঔষধ” প্রয়োগ कबिर ॥ ७e॥७७