পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/১৯০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*లి* उमकेक्रिश्नम्न । L \ტ oშ-i şkg হ্যাকড়া জড়াইয়া তন্দ্বারা ক্ষার লইয়া উক্ত ক্ষতে প্ৰদান করিবে এবং মাত্রাশত কাল (একটা গুরুবৰ্ণ ; উচ্চারণ করিতে যে সময় লাগে, তাহাকে এক মাত্ৰা কাল কহে। এইরূপ শত মাত্ৰা কাল) অপেক্ষা করিবে অর্থাৎ, এই সময়ের মধ্যে আর কাঞ্জিকাদি দ্বারা নিৰ্বাপণ করিবে না। - । 曹 অশোরোগে ক্ষারপাত করিয়া হস্ত দ্বারা যন্ত্রমুখ আচ্ছাদন পূর্বক শত মাত্রা কাল অপেক্ষা করিবে । ( অর্শের সন্নিহিত স্থানে ক্ষার না লাগে সে বিষয়ে সাবধানতার, অন্স যন্ত্রমুখ আচ্ছাদন করিবার বিধি । ) * * 喂 বস্মরোগে ক্ষার প্রয়োগ করিতে হইলে হস্তের অঙ্গুলি দ্বারা বায়ুথিয় (চক্ষুর পাতা দুইটী ) বক্ৰীকৃত, এবং ক্ষারস্পর্শ্বপরিহারার্থ কার্পসার্দি তুলা দ্বারা চক্ষুর কৃষ্ণভাগ (তারা) আচ্ছাদিত করিয়া ক্ষার প্রয়োগ করিবে। ” নাসাৰ্ব্বদে ক্ষার প্রয়োগ করিতে হইলে রোগিকে সূৰ্য্যাভিমুণে বসাইয়া তাহার নাসিকার অগ্রভার্গ উন্নত করিয়া ক্ষার পাত করিবে এবং পঞ্চশ মাত্ৰা কাল অপেক্ষা করিবে। কর্ণজ অর্শেও এইরূপ্তে ক্ষার পাত করিবে। বায়ুরোগে নাসাৰ্ব্বদে ও কর্ণার্শে পদ্মাপত্রের ন্যায় পাতােল। করিয়া ক্ষারের প্রলেপ দিবে ৷৷ ২৭-৩০ ক্ষার প্রয়ােগের পর নির্দিষ্ট সময় অতীত হইলে স্বাক্ষ্মীবস্ত্রাদির দ্বারা ই ক্ষার প্রলেপ অপুর্নয়ন করিয়া, ক্ষীরস্থান সম্যক দাহ্যাদি লক্ষণ দ্বারা সুন্দগ্ধ অবগত হইয়া ঘূত ও মধুর প্রলেপ দিবে এবং দুগ্ধ দধির মাত ও কাঞ্জিক দ্বারা নিৰ্বাপিত করিবে। ইহাতে ঘূত মিশ্ৰিত করিয়া মধুর ও শীতবীৰ্য্য দ্রব্যের প্রলেপ দিবে। ক্ষারদগ্ধ স্থানের ক্লেদানার্থ মাষকলায় দধি প্ৰভৃতি, অভিয্যন্দী ভোজ্যদ্রব্য ভোজন করাইবে ॥৩১ ॥৩২ অভিষ্যন্দি ভোজ্য ভোজন করিলেও যদি দৃঢ়মূলত্বহেতু ক্ষার ‘দ্বন্ধ স্থান শীর্ণ না হয়, তাহা হইলে ধান্তান্নবীজ (ধান্যামের অধঃস্থ পদার্থ)। যষ্টিমধু ও তিলের প্রলেপ দিবে। যষ্ঠিমধুষুক্ত তিলকল্ক দ্বত মিশ্ৰিত করিয়া তাহার প্রলেপ দিলে ব্রণরোপণ হইয়া থাকে৷ ৩g ক্ষারদগ্ধস্থান পাক জৰ্ম্মফলের ন্যায় কৃষ্ণবর্ণ ও নিম্ন হইলে তাহাকে সম্যকদগ্ধ বলিয়া জানিবে। छुtिर्थ ইহার বিপরীত লক্ষণ এবং তাম্রবর্ণিতা তেদি কাণ্ডু শোথ ও বিস্ফোটকাদি লক্ষণ প্ৰকাশ পায়। দুৰ্দগ্ধ স্থান-ক্ষারপ্রয়োগ দ্বারা পুনরায় দগ্ধ করিবে। 'অতিথি হইলে রক্তস্রাব মূৰ্ছা দাহ জয় বিসৰ্প শোধ ও বিস্ফোট প্রভৃতি হইয়া থাকে ৷৷ ৩৪৩, গুহৃদেশ যদি ‘অতিদ্বন্ধ হয় তাহা হইলে পূৰ্বোক্ত রক্তস্রাবাদি লক্ষণ বিশেষতঃ মল মূত্রের দেখ বা কদাচিৎ অতিপ্ৰবৃত্তি ও পুরুষদ্ধের নাশ হয় অথবা গুহাদেশের বিদারুণ হেতু নিশ্চয় মৃত্যু ঘটয়া থাকে (৩৬ . ' ' ' V ক্ষার প্রয়োগে নাসিক অতিদগ্ধ হইলে নাসা বংশের বিদারণ সঙ্কোচ ও বিষয়াজজ্ঞান ( ভ্ৰাণশক্তি নষ্ট) হয়।" এইরূপ কৰ্ণ চক্ষুঃ জিহবা প্রভৃতি স্থান ক্ষারাতিদগ্ধ হইলে তাহাদের স্ব স্ব বিষয়ের জ্ঞান থাকে না অর্থাৎ কৰ্ণে শুনিতে পাওয়া ও চক্ষুতে, দেখিতে পাওয়া शब्ञ ॥ ७१॥ এরূপ অতিদ্বন্ধ স্থানে কাঞ্জিকাদি অন্নদ্রব্যের পরিষেক, মধু স্থত ও কৃষ্ণতিলের প্রলেপ এবং