পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/২১০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sct. उछ् । [ ৩য় অঃ স্রোত বিদ্ধ হইলে মােহ কম্প উদরাত্মান বমি জ্বর প্রলাপ শূলবদ বেদনা মলমূত্ররোধ বা মৃত্যু ঘটিতে পারে। অতএর চিকিৎসক ‘ম্রোতোবিদ্ধ ব্যক্তিকে প্ৰত্যাখ্যান করিয়া অর্থাৎ তাহার জীবন সংশয়, চিকিৎসা না . করিলে অবশ্য মৃত্যু এই কথা তাহার আত্মীয় স্বজনকে বুঝাইয়া অতিযত্বপূর্বক তাহার শল্য” উদ্ধার, করিবেন এবং সদ্যঃক্ষতচিকিৎসানুসারে চিকিৎসা করিবেন ৷৷ ৪৭৪৮ , পূৰ্ব্বে দােষভেদীর অধ্যায়ে কথিত হইয়াছে, পাচকাশ্য পিত্তই সৰ্ববিধ ভুক্তদ্রব্যের পত্তা ইহা ধন্বন্তরির মত। কিন্তু আত্ৰেয় মুনির আদেশ এই যে বাতাদিদোষ, রসাদিধাতু ও” মূত্রপুরীষাদি মলের উত্মাই ভুক্তারের পক্তা, পাচকাখ্য পিত্ত নহে ॥৪৯ সেই জাঠির অগ্নির আধার গ্ৰহণী নাড়ী; ভূক্তগল্পগ্রহণ করে বলিয়া ইহাকে গ্ৰহণী বলে । ধন্বন্তরি মতে ইহাই পিত্তধারা কলা। এই গ্ৰহণী নাড়ী দ্বারাই আয়ু আরোগ্য বীৰ্য্য, ওজ পঞ্চভূতাগ্নি ও সপ্তধাত্বগ্নির পুষ্টি হইয়া থাকে। ইহা পকাশয়ের দ্বারে ভুক্তমার্গের অর্গল (খিল) স্বরূপে অবস্থিত; সেই জন্য ভুক্তান্ন সহসা পকাশয়ে যাইতে পারে না । ভুক্ত দ্রব্য কণ্ঠ হইতে কোষ্ঠে আঁসিালে গ্ৰহণী নাড়ী কর্তৃক গৃহীত ও জাঠির অগ্নি দ্বারা পর্ষ হইয়া ক্রমশঃ পঙ্কাশয়ে গমন করে ॥ ৫০৫১ গ্ৰহণী নাড়ী বলবতী থাকিলে ভুক্তান্নিকে আমাশয়ে রদ্ধ ও বিবিধ প্রকারে জীর্ণ কবিয়া অধঃ (পৰকাশয়ে) কোষ্ঠে প্রেরণ করে। কিন্তু যদি গ্ৰহণী দুর্বল হয় তাহা হইলে ভুঞ্জগন্নকে ख्शृंभ (অপক) অবস্থাতেই ত্যাগ করে ॥ ৫২ (N যে হেতু গ্ৰহণীর বল অগ্নি এবং অগ্নির বল গ্ৰহণী, সেই জন্য অগ্নি দুষিত হইলে গ্ৰহণী”নাড়ী দুষ্ট হইয়া রোগকারিণী হয় এবং গ্ৰহণী • দূষিত হইলেও অগ্নি দুষ্ট হইয়া রোগকারী হইয়া ९८क ॥ ४७ Q আহার যে, দেহ ধাতু ওজুঃ' বল ও বর্ণাদির গোষণ করে তদ্বিযমে অগ্নিই কারণ। যেহেতু অপঞ্চ আহার হইতে রস রক্তাদি ধাতুর উৎপত্তি হয় না, সুতরাং দেহাদিরও পুষ্টি হইতে পারে না। অগ্নিপ্রভাবেই অন্ন দেহধাত্মাদির পােষণ করে। অগ্নি অন্নপাকের কারণ এবং পক্ষ অন্ন দেহাদির পোষক, অতএব এবিষয়ে অগ্নিই প্রধান কারণ ॥ ৫৪ ভোজন কালে ভুক্ত অন্ন প্ৰাণ বায়ু কর্তৃক কোষ্ঠে আনীত হইলে তথায় কৈাঠজ ও পীত দ্রণ পদার্থ (জল মন্ত:যুষ দুগ্ধ প্রভৃতি) দ্বারা তাহা শিথিল ও श्ड.ि স্নেহ দ্বারা মৃদু হয়। সমান বায়ু দ্বারা উদ্দীপিত জাঠির অগ্নি আমাশয়স্থ উক্ত ভুক্তান্নিকে পরিপাক করিয়া থাকে। বাহ অগ্নি । যেমন স্থালীস্থিত জল ও তণ্ডুলকে পাক করে, জািঠর অগ্নির ক্রিয়াও তদ্রুপ ॥ ৫৫ অশিতপীতাদি ভুক্ত দ্রব্য প্রথমে ছয় রস বিশিষ্ট হইলেও পচ্যমান অবস্থায় প্ৰথমে তাহা মধুৱীভূত হইয়া ফেনীভূত কফি উৎপন্ন করে, তৎপরে মধ্যাবস্থায় আমাশয় হইতে চাবমান ঐ অল্প বিদােহ হেতু অন্নতা প্ৰাপ্ত হওয়ায় পিত্ত উৎপাদন করে, শেষ অবস্থায় তাহা আমাশয় হইতে পৰাশয়ে চু্যত অগ্নি দ্বারা শোষিত পিণ্ডত ও কটু সান্বিত হইরা বায়ুর উৎপত্তি করিয়া থাকে৷ ৫৬৫৭ জািঠর অগ্নির কৰ্ম্ম কথিত হইল, এক্ষণে অন্যান্য অগ্নির কথা বলা যাইতেছে। ভৌম আপ্য আগ্নেয় বায়ব্য ও নাভস এই পাঁচ প্রকার উন্মা (পঞ্চভুতায়ি) পাঞ্চভৌতিক আহারের স্ব স্ব পার্থিবাদি ভাবকে পাক করে। অর্থাৎ ভৌম উন্মা ভৌম গুণকে, জলীয় উন্মা জলীয় গুণকে,