পাতা:আগামীকাল - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/৬০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চাচেছ । ওর একার পক্ষে ত আর দেশের সবত্র হুটোছটি করা সম্ভব নয়। তা ছাড়া DDBBDD LDYSS BBBLDSBuuBB BDBD SDDD DDDD DDD BBDBYS BBDD সময় বিশেষ শ্রেণীর প্রাণীর মত গন্ধ শিকে শকে এখােন পর্যন্ত ধাওয়া করতে পারে। বিপদ পায়ে পায়ে। তবে বিপদের ভয়ে হাত-পা গটিয়ে ঘরের কোণে বসে থাকাও তি BBuD DDS DDD DB DgO B DB DBDSDL D DD BD DDBBBD অগিনমস্ত্রের দীক্ষা নিয়েছে। মতুক এরা পায়ের ভত্যে পরিণত করেছে। দলে দলে কাতারে কাতারে ওরা হাসিমাখে। বছরের পর বছর অন্ধকারায় নিযাতন ভোগ করছে, তবও ‘’ মন কোন শক্তি নেই। এদের কতব্যসুত করতে পারে ; হাসিমখে ফাঁসির দড়ি গলায় পরতেও এতটুকুও বিধা নেই, নেই। এতটকুও মাতু-ভয় । কেন ? কিসের আশায় ? কিসের মোহে ওরা জীবন সংশয় জেনেও পতঙ্গের মত উচ্চত্রান্ত হয়ে আগমনের দিকে ছটে যায় ? রমেন আর মণিমালার মত হাজার হাজার যবেক-যাবতী আত্মসখ। জলাঞ্জলি দিয়ে এই যে দেশমাতৃকার শঙ্খল মোচনে মন-প্ৰাণ সাপে দিয়েছে। এ মোটেই আকস্মিকতার ফল নয় । বন্যার জলের মত জোয়রে গা ভাসিয়ে দেয় নি । দেশকে ভালবাসার। এ-ভাব বাইরের নয়, অন্যের দ্বারা প্রভাবিতও নয় । অন্তরের অন্তঃস্থল পর্যন্ত এর শিকড় বিস্তৃত। জলধি আর এককড়ি ? এরা ত সমদ্র-জলের বদবদমাত্রে, এই আছে, এই নেই। বিপলব করতে গেলেও কঠিন-কঠোর সাধনার প্রয়োজন। আর এর জন্য চাই মনের ঐকান্তিক আগ্রহ, নিঠা, একাগ্রতা ও অধ্যবসায়। পরহিতাথে দঃখ, বরণ সবার স্বারা সম্পভব নয় । তা-ত ধনকুবের এককড়ি'র মত সস্তায় বাজী মাৎ করতে গিয়ে স্বদেশকল্যাণ-সংঘ প্রতিষ্ঠা করে অবসর বিনোদনের উপায় নয়। প্রয়োজনে সাত-সমন্দ্রি তের নদী পাড়ে গিয়ে ফুীড়ম লীগ গড়ে তোলার কািট স্বীকার করতেও দিবধা করে না । রমেন পেরেছে। অমানষিক বণ্ট স্বীকার করে বিনা ভাড়ার, সরকারের বিনা অনািমতিতে জাহাজের ডেকে, খালাসির কাজের কঠোর পরিশ্রম স্বীকার করে বিদেশে পাড়ি জমাতে DBBY DBDS SDBBBDB DDDSDDD DBBDBDS DBBS DBBD KDLS SgSDBDD স্বীকার ? শাধমাত্র ফ্ৰীডম লীগ গড়েই রমেন নিশ্চিত হয়ে বসে থাকতে পেরেছে ? তাই যদি হ’ত তবে ত পথিবীর অন্যান্য রাষ্ট্ৰে হন্যে হয়ে ছাটােছটি করে অস্ত্রপাতি ও গোলাবারদ সংগ্রহের জন্য প্রয়াসী হতে দেখা যেত না । অনন্য সাধারণ দেশপ্রেম, প্রখর উপস্থিত বন্ধি, প্রয়োজনে ছলচিাতুরীর আশ্রয় নিয়ে বিপদ হতে উদ্ধার পাওয়ার কৌশল প্রভাতি বিপ্লব সাধনার মালধন। এদের পাসে ন্যাল লাইফ আছে ঠিকই কিন্তু সবটাই ছকবাঁধা । এর এতটকুও হেরফের হবার উপায় নেই। এককড়ি, রমেন বা সর্বদেশ- কল্যাণ সঙ্ঘের সদস্যরা রমেন ও মণি'র মত বিপলবীদের মনের খবর পাবে কি করে ? ধনকুবের এককড়ি সস্তায় নাম কেনার জন্য কল্যাণ-সংঘ dኔክታ