পাতা:আজ কাল পরশুর গল্প.pdf/১৫৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


दुक्ल °: म श मा भ खुg কেন না ঘুরে উঠেছে। রাত্রে ভাল ঘুম হয়নি, পেট গরম হয়েছিল। কেন যে বাড়ির সবাই খাও খাও ক’রে তাকে এত বেশী খাওয়ায় ! • আজ সাবধানে খাওয়া দাওয়া করতে হবে। দাত মেজেই স্বর্ণাসিন্দুর थां9वा प्रांथे । বিরক্তি চেপে ভেবেচিন্তে কৃপাময় জবাব দেয়, “ঢাক পিটে বেড়াবে শুনে ভূধরের মনে হয়, কৃপাময় যেন বলতে চায়, তোমার ছেলের কীতির কথা ঢাকা পিটে রটাবার দরকার হয় না, সবাই জানে। কি আস্পদ লোকটার, এমনভাবে তার সঙ্গে কথা কয়, এমন ভাসা ভাসা উদাসীনভাবে, অবজ্ঞার সঙ্গে। আর নয়। আর একটি কথা সে বলবে না। ওর সঙ্গে ৷ নাই পেলে এরা বেড়ে যায়। কৃপাময়ের দিকে প্ৰায় পিছন ফিরে ভূধর এবার মাটিতে থুতু ফেলে। কৃপাময় একটু ইতস্তত করে। • তার কি উচিত লোকটাকে একটু সাবধান করা ? ফল হয় তো কিছুই হবে না, তবু বলতে বোধ হয় দোষ নেই। দালানের ঘরের জানাল দিয়ে উকি মারছে এক জোড়া বুভূক্ষু চােখ, ভূধরের সেজ ছেলে সুরেশ। তাকিয়ে সে আছে দালানের দক্ষিণ বাপের বঁাধানো পুকুরঘাটে, যেখানে ছেড়া ন্যাকড়ায় কোনো মতে, কিংবা শুধু খানিকটা লজ্জা ঢেকে এসেছে গায়ের ক'জন মেয়ে, না। এসে যাদের উপায় নেই, নিরুপায় হয়েও ক'দিন পরে হয়তো যারা আসতেই পারবে না ! “একটা কথা আপনাকে বলি সরকারমশায়।” ‘হম’ ভূধর ফিরেও তাকায় না। "