পাতা:আজ কাল পরশুর গল্প.pdf/৭৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*T 百 平T 可* 可 9否 5 爾 কী করে জানা যেন চাষীর ঘরের এতটুকু কচি বৌয়ের পক্ষে আশ্চৰ্য্য নয় । বাড়ীর দিকে চলতে চলতে মঙ্গলা ভাবে, তা বটে, ওরা আসতে পারে। আবার। সুদেব আর ভুদেবের আসবার সম্ভাবনাই বেশী, মায়ের ওদের আজ-মারে কাল-মরে অবস্থা, অন্যেরাও আসতে পারে, তাদেরও মা বোন ভাই আছে। গোলোক যদি আসে ? ওর অবশ্য তেমন আপনি কেউ কেউ নেই এখানে। তার সঙ্গে যে সম্পর্ক সেটা ধরলে আছে, না ধরলে নেই। তবু, কিছুদিন তো ছিল তার কাছে লোকটা, আর ছিল বলেই ওর জন্য ভোগান্তি তার কম হয়নি এবং হচ্ছে না, খবর নিতে কি আসতে পারে না একবার ? যদি আসে, একচেটি ওকে নেবে মঙ্গলা । পাছাটা টনটন করে ওঠে মঙ্গলার, কোমরটা একটু বেঁকে গিয়ে কলসীর জল খানিকটা উছলে পড়ে যায়। - ইস, কী হয়ে গেছে দেহটা তার, এক কলসী জল বইতে এত কষ্ট ! জেল হোক, দ্বীপান্তর হোক, ফাসি হোক, গোলকের নাগাল পেলে মঙ্গলা তাকে ধরা দিতে বলবে। নিজে ধরা না দিলে, সেই তাকে ধরিয়ে দেবে। কেন, কিসের অন্ত খাতির ওর। ক্ষোভে দুঃখে চোখ ফেটে জল আসে। মঙ্গলার। পায়ের কাছে ঘাসে কলসীটা নামিয়ে রেখে চারিপাশের জগতকে প্ৰাণভরে গলা ফাটিয়ে একচােট গালাগালি দিতে মনটা তার ছটফট করে। মােঠ জঙ্গল নালা ডোবাকে, আস্ত আর পোড়া চালার ভস্মগুলিকে, ফসল ভরা আর ফসল-পোড়া ক্ষেতগুলিকে, অস্ত্ৰাণের সোনার সকালকে, চলমান মানুষ আর গরু বাছুরগুলিকে। মাটিতে পায়ের পাতায় কাটার ব্যথা ভুলে o