পাতা:আত্মকথা - সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভয় ভাবনা চলিয়া গেল। নিশ্চিন্ত মনে বেড়াইতেছি, রাত্রি আটটা সাড়ে আটটার সময় কে আসিয়া পিছন হইতে আমার ঘাড়ের কাপড় ধরিল। আমি বলিলাম, “কে cরে ?” স্বপ্নেও ভাবি নাই যে বাবা সেখানে আসিয়া ধরিবেন । কিন্তু ফিরিয়া দেখি, BBS DBDB DBDBB u D BDBD DD DBBBBSiDDDD DDBD BBDB DS সে ঘুষ খাইয়া কান্না গিলিয়া খাওয়া আমার পক্ষে মুশকিল হইয়া পড়িল। কি করি, কান্না গিলিতে লাগিলাম। বাবা সে অবস্থায় আমাকে বাড়ি লইয়া গেলেন, এবং উঠানের মধ্যে দাড় করাইয়া বলিলেন, ‘দাড়িয়ে থাক, নড্রিস নে, আমি আসছি।” এই বলিয়া আমাকে মারিবার জন্য যে বঁাশের ছড়ি কাটিয়া গোলার গায়ে রাখিয়া গিয়াছিলেন, তাহা খুজিতে গেলেন ; মা যে তৎপূর্বেই সে ছড়ি পুকুরের জলে SBBD DBBS DBDBS DBD DSS DD g DD DDB KDBBLB DD থাকিতেই আমার মা, বড়পিসী, পিসতুতো দিদি, বিবাহ বাড়ির লোকেরা আসিয়া আমাকে ঘেরিয়া ফেলিয়া বলিতে লাগিলেন, “ওরে । পালা পালা, মা’র খাবার জন্তে কেন দাড়িয়ে থাকিস ।” আমি বলিতে লাগিলাম, “না, আমি যাব না, বাবা যে আমাকে দাড়িয়ে থাকতে বলে গিয়েছেন।” এই বলিয়া প্ৰায় আধা ঘণ্টা কাল দাড়াইয়া রহিলাম । ওদিকে বাবা আপনার ছড়িগাছ না পাইয়া, কি দিয়া মারিবেন তাহাই খুজিয়া বেড়াইতেছেন। অবশেষে আর কিছু না পাইয়া একখানা চেলা কাঠ লইয়া উপস্থিত “হইলেন । সেই কাঠ লইয়া যখন আমাকে মারিতে আসিলেন, তখন বড়পিসী আমার ও বাবার মধ্যে আসিয়া পড়িলেন । বলিলেন, “ওরে ডাকাত ! দে কাঠ দে । ওই কাঠের বাড়ি মারলে কি ছেলে বাঁচবে।” এই বলিয়া বাবার হাত হইতে কাঠ কাড়িয়া লইবার চেষ্টা করিতে লাগিলেন । দুই ভাইবোনে হুটােপুটি লাগিয়া গেল। বাবা বড়পিসীকে এরূপ এক ধাক্কা মারিলেন যে, তিনি তিন-চারি হাত দূরে মাটিতে পড়িয়া গেলেন। তখন আমার মা প্ৰস্তরের মূতির ন্যায় অদূরে দণ্ডায়মান, সাড়া নাই শব্দ নাই, নড়া নাই চড়া নাই। বাবার সহিত চোখোচোখি হওয়াতে তিনি বলিলেন, “তুমি আমাকে দেখি কি ? ছেলে মেরে ফেলতে হয় মেরে ফেল, আমি এক পা-ও নড়িব না ।” বাবা বলিলেন, “আচ্ছা, তবে দেখ।” এই বলিয়া সেই চেলা কাঠ দিয়া আমাকে মারিতে প্ৰবৃত্ত হইলেন। তখন আরো কেহ কেহ আমাকে বঁাচাইবার জন্য আসিয়া পড়িয়াছিলেন, কিন্তু তঁহাদের মাথায় ও পিঠে চেলা কাঠ পড়াতে কিছু করিয়া উঠতে পারিলেন না। চেলা কাঠের কয়েক ঘা খাইয়াই আমার মাথা ঘুরিতে লাগিল । আর মানুষ চিনিতে পারি না। বোধ হইতে লাগিল, আমার চারিদিকে মুখগুলো (S