পাতা:আত্মকথা - সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪১১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


হওয়াতে যুবকগণ র্তাহার দিক হইতে মুখ ফিরাইয়া লইতে লাগিলেন। আমাদেৱ মনের উপরে তাহার শক্তি অনেক পরিমাণে যেন হ্রাস হইতে লাগিল । ভারত সভা স্থাপন। যখন ব্ৰাহ্মসমাজে এই সকল আন্দোলন চলিতেছে, তখন আনন্দমোহন বসু, সুরেন্দ্ৰনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় ও আমি, তিনজনে আর এক পরামর্শে ব্যস্ত আছি। আনন্দমোহনবাবুবিলাত হইতে আসার পর হইতে আমরা একত্র হইলেই এই কথা উঠিত যে, বঙ্গদেশে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর জন্য কোনো রাজনৈতিক সভা নাই । ব্রিটিশ ইণ্ডিয়ান এসোসিয়েশন ধনীদের সভা, তাহার সভ্য হওয়া মধ্যবিত্ত মানুষদের কর্ম নয়, অথচ মধ্যবিত্ত শ্রেণীর লোকের সংখ্যা ও প্রতিপত্তি যেরূপ বাড়িতেছে, তাহাতে তাহাদের উপযুক্ত একটি রাজনৈতিক সভা থাকা অবশ্যক। আমাদের তিনজনের কথাবার্তার পর স্থির হইল যে, অপরাপর দেশহিতৈষী ব্যক্তিগণের সহিত পরামর্শ করা কর্তব্য। অমৃতবাজারের শিশিরকুমার ঘোষ মহাশয় আনন্দমোহনবাবুর বন্ধু এবং আমারও প্রিয় বন্ধু ছিলেন। প্ৰথমে তাহাকে পরামর্শের মধ্যে লওয়া হইল। তৎপরে প্রসিদ্ধ ব্যারিস্টার মনোমোহন ঘোষ মহাশয়কেও লওয়া হইলে । মনোমোহন ঘোষের বাড়িতে এই পরামর্শ চলিল। তাহার সকল পরামর্শে আমি উপস্থিত ছিলাম না, কাৰ্যাস্তরে অন্যত্র ছিলাম। কি পরামর্শ হইতেছে তাহা আনন্দমোহনবাবু ও সুরেন্দ্রবাবুর মুখে শুনিতাম। যখন একটা সভা স্থাপন এক প্ৰকার স্থির হইল, তখন একদিন আনন্দমোহনবাবু ও আমি ঈশ্বরচন্দ্ৰ বিদ্যাসাগর মহাশয়ের সহিত দেখা করিতে গোলাম । বিদ্যাসাগর "মহাশয়ের এরূপ প্ৰস্তাবে বিশেষ উৎসাহ ছিল । তিনি বলিলেন, এতৎস্থাৱা দেশের একটি মহৎ অভাব দূর হইবে। আমরা তাঁহাকে আমাদের প্রথম সভাপতি হইবার জন্য অনুরোধ করিলাম, কিন্তু তিনি শারীরিক অসুস্থতার দোহাই দিয়া সে অনুরোধ অগ্রাহ্য করিলেন । এলবাট হলে প্ৰকাশ্য সভা করিয়া ভারত সভা স্থাপন করা গেল, এবং আনন্দমোহনবাবুকে তাহার সম্পাদক করা গেল। সেদিনকার কথা এই মনে আছে যে, সেদিন সুরেনবাবুর একটি পুত্রসন্তান মারা যায়, তিনি তৎসত্ত্বেও আসিয়া সভা স্থাপনে সাহায্য করিলেন। আনন্দমোহনবাবু সম্পাদক, সুরেনবাবু সহ-সম্পাদক আমরা কয়েকজন কমিটির সভ্য, আমি প্ৰথম চাদা আদায়কারী সত্য, এই লইয়া ভারত সভা বসিল । আমরা ৯৩নং কলেজ ষ্ট্রীটে ঘর ভাড়া করিয়া ভারত সভার আপিস স্থাপন করিলাম। সে আপিস ঘরের অবস্থা দেখিয়া স্বপ্রসিদ্ধ সুরসিক কবি ইন্দ্ৰনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় তাহার প্রণীত ‘ভারত উদ্ধার” কাব্যে লিখিলেন, “কড়ি আগে পড়ে। কিম্বা দড়ি আগে ছেড়ে ।” বাস্তবিক, উহার দশা ঐ প্রকারই ছিল। CO