পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/১১৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ । SSS তাহার কোথায় গিয়া পড়িলেন ! মাসীকে আর কতকাল দেখিলাম DD sEB DDD GBLSS D DB LBDBDBD BDDB GBB DDBS DBBDS DBD DDB BBBBBB LBDD DDBD DDD DDD 0YY পাইয়াছি ততটা প্ৰেম দিতে পারি নাই । এ জীবনে নানা সংগ্রামের মধ্যে বাস করিয়াছি, তাহা বোধ হয় আমার প্রেমিক বন্ধুদেৱ প্ৰতি সমুচিত প্রেমের অভাবের একটা কারণ। নিৰ্য্যাতন, বিদ্বেষ, বিবাদ প্রভৃতির মধ্যে পড়িয়া মন উত্তাপের মধ্যে বাস করিয়াছে, প্রেমের সুশীতল বায়ু সেবন করিবার সময় পায় নাই।” যাহা হউক, আমি এই মাসীর এত মেহের এই মাত্ৰ প্ৰতিদান কিরিতাম যে তাহদের মতিমকে রোজ কাছে আনিয়া পড়া বলিয়া দিতাম। ১৮৬৭ সালের শেষভাগে ইহঁর কলিকাতার শাকারিটোলাতে একবাড়ীতে গিয়া থাকিবেন বলিয়া স্থির করিলেন। তখন মাসী আমাকে সঙ্গে যাইবার জন্য ধরিয়া বসিলেন। আমি তাঙ্কাদের অনুরোধ অগ্ৰাহ করিতে পারিলাম না। আমরা আসিয়া শাকারিটোলাতে বাস করিতে লাগিলাম। আমি ও মহিম বাহিরবাড়ীতে এক দ্বিতীয়তলা গৃহে বাস করিতাম। সে ঘরটী বাহিরবাড়ীতে হইলেও ঠাকুরদালানের ছাদের উপর দিয়া অন্দর মহল হইতে সে ঘরে যখন ইচ্ছা আসা যাইত। সুতরাং মাসী কাজকৰ্ম্ম হইতে একটু অবসর পাইলেই আমার ঘরে আসিয়া বসিতেন, এবং আমার ও মহিমের পড়া দেখিতেন, এবং নানা ভাল কথায় কাল কাটাইতেন। আমরা এই বাড়ীতে আসার পর মাসীর এক ভ্রাতুষ্পপুত্রী ১৫১৬ বৎসরের বালিকা তাহদের নিকট আসিয়া প্ৰতিষ্ঠিত হইল। সে ২১দিনের মধ্যেই আমাকে দাদা করিয়া লইল, এবং চুম্বকে যেমন লৌহ লাগে তেমনি যেন আমাতে লাগিয়া গেল। পিতামাতা ঐ বালিকাটাকে শৈশৰে একজন