পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/৩৭৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


pfgs V9 ৯ইয়াক ভাবিতে লাগিলাম, কিসের অধিক প্ৰশংসা করিব, ইংরাজের অদ্ভুত কাৰ্য্যের ব্যবস্থা করিবার শক্তির, অথবা পরহিতৈষণার। কাজের এরূপ সুব্যবস্থা জীবনে কখনও দেখি নাই, এরূপ পরোপকার-প্রবৃত্তিও দেখি asI | এইরূপ আর-একটি আশ্রয়-বাটিকা দেখিয়া বিস্মিত হইয়াছিলাম। সেটা ব্ৰিষ্টল নগরের সুপ্ৰসিদ্ধ জর্জ মুলারের প্রতিষ্ঠিত অনাথাশ্ৰয়-বাটিকা। হহার ইতিবৃত্ত অতি অদ্ভুত। কিরূপে জর্জ মূলার এক পয়সা ভিক্ষা K DDuS tD BBS BDBBDBD DDBDSDuuDuDB LBBB DDDS স্বতঃপ্রবৃত্ত দানের দ্বারা ৬৩ বৎসর এই সকল আশ্ৰয়-বাটিকাতে এককালে সঙ্গশ্রাধিক পিতৃমাতৃহীন বালক-বালিকাকে রাখিয়া প্ৰতিপালন করিয়া আসিয়াছেন, তাহা অতীব বিস্ময়কর ও ঈশ্বরবিশ্বাসী ব্যক্তি মাত্রেরই পাঠের যোগ্য । ১৮৮৮ সালের ২৭শে সেপ্টেম্বর দিবসে মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের अङ्गानि बिछेल नशाब डैशब्र डिड qक जड कब्रियांब्र बच पै नशंटन नाई। ड९भूत यानि ७ अगांब्र बकू श्गाप्नाश्न मान ७टनांगी श्वा রাক্তার সমাধি-মন্দিরের মোৱামতের বন্দোবস্ত করিয়াছিলাম। কিরূপ মেরামত হইল, তাহ দেখিবারও ইচ্ছা ছিল। ঐদিন আমি সমস্ত দুপুর SDBB LLLLLL LLLLLLL DDD BDSBB K BDBBKS ES করি, এবং সন্ধ্যার সময় এক প্ৰকাশ্য হলে রাজার বিষয় বক্তৃতা করি। রাজার স্মৃতি যে এখনও ব্ৰিষ্টলবাসীর মনে আছে তাহা জানিতাম না। আমি ১৮৮৮ সালের ২৭শে সেপ্টেম্বর দুপুর বেলা দ্বারকানাথ ঠাকুর ধিনিৰ্ম্মিত রাজার সমাধি-মন্দিরে বসিয়া আছি, দেখিলাম সেই সময়ের মধ্যে কয়েক ব্যক্তি আসিয়া রাজার সমাধি-মন্দিরের সমক্ষে ভক্তিভাবে দাড়াইয়া তাছার সমাধিতে লিখিত বাক্যগুলি পাঠ করিতে লাগিলেন। তৎপরে