পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/৩৮৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


CRiy Pfist Vo6. তোমাদিগকে ডাকিতেছেন।” “ধীশুর চরণে মতি রাখ, ৰীশুর চরণে প্রার্থনা কর, তিনি তোমাদিগকে বল দিবেন”, ইত্যাদি, ইত্যাদি। সমুদয় প্রাচীর ধীশুর গুণগানে পরিপূর্ণ; ঈশ্বরের নাম কোথাও নাই! দেখিয়া আমি কিছু বিষয় হইয়া গেলাম। আমার বিষয়ে মুখ দেখিয়া ব্ৰামওয়েল বুখ জিজ্ঞাসা করিলেন, “আপনাকে বিষন্ন দেখিতেছি কেন?” আমি বলিলাম, “কেবল ধীশু বীশু দেখিতেছি, ঈশ্বরের নাম কোথাও নাই, সেই জন্য আমার দুঃখ হইতেছে; আপনারা ধীশুরূপ পর্দা দিয়া একেবারে ঈশ্বরকে ঢাকিয়া ফেলিয়াছেন।” ব্ৰামওয়েল বুখি হাসিয়া বলিলেন, “আপনি কি জানেন না DB BBBBD DDDBS DD DDLuB BKDB BD DBD S BDD BDBDB লাগিলাম, অবতারবাদে ভক্তবৎসল। ভগবানের স্বরূপকে কি চাপা দিয়াই ফেলিয়াছে ! এই ভাবিতে ভাবিতে ঘরে প্রতিনিবৃত্ত হইলাম। অপরাপর স্থানের মধ্যে কিণ্ডারগার্টেন স্কুল, বোর্ড স্কুল, অপরাপর মিডুল ক্লাস স্কুল পরিদর্শন করিয়াছিলাম। কিণ্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষাপ্ৰণালী দেখিয়া চমৎকৃত হইয়া গেলাম। শিশুদিগকে হাতে-কলমে শিক্ষা দিবার যে এত প্ৰকার উপায় উদ্ভাবন হইতে পারে, তাহা অগ্ৰে জানিতাম না । তাহাদিগকে খেলার ভিতর দিয়া নানাপ্ৰকার জ্ঞাতব্য বিষয় শিক্ষা দেওয়া হইতেছে। তাহারা মাটি দিয়া ছোটখাট বাড়ী গড়িতেছে ; নানা রঙের কাগজ দিয়া অন্য প্রকার পদার্থ নিৰ্ম্মাণ করিতেছে। শিক্ষয়িত্রীরা আমাকে লইয়া সকল বিভাগ দেখাইলেন। অবশেষে একজন শিক্ষয়িত্রী যখন শিশুদিগের সহিত করতালি দিয়া নাচিতে নাচিতে ঘরে ঘুরিয়া আসিতে লাগিলেন, তখন বিস্ময় ও আনন্দে পূর্ণ হইয়া দেখিতে লাগিলাম। শিশুদের এই শিক্ষাপ্ৰণালী আমার এত ভাল লাগিয়াছিল যে, আমি আসিবার সময় কিণ্ডারগার্টেনের প্রতিষ্ঠাতা ফ্রোবেলের জীবনচরিত ও উক্ত শিক্ষাপ্রণালীর কয়েকখানি গ্ৰন্থ কিনিয়া R(t